দুর্নীতির অভিযোগে অঙ্গনওয়াড়ি কর্মীকে বরখাস্ত

267
বৃহস্পতিবার উছলপুকুরির দেউতিরহাট অঙ্গনওয়াড়ি কেন্দ্রের সামনে স্থানীয় মানুষের জটলা।

জামালদহ: দুর্নীতি ও কর্তব্যে গাফিলতির অভিযোগে এক অঙ্গনওয়াড়ি কর্মীকে বরখাস্ত করার সিদ্ধান্ত নিয়েছে প্রশাসন। কোচবিহার জেলার মেখলিগঞ্জ ব্লকের উছলপুকুরির দেউতিরহাট অঙ্গনওয়াড়ি কেন্দ্রের অভিযুক্ত ওই কর্মীর নাম ভারতী অধিকারী। শুধুমাত্র গ্রামবাসীদের একাংশের মৌখিক অভিযোগের ভিত্তিতে তাঁকে শুধু বরখাস্ত করাই নয়, বদলি করার কথাও ঘোষণা করেছেন খোদ মেখলিগঞ্জের সিডিপিও জগদীশ রায়। তিনি এদিন ওই অঙ্গনওয়াড়ি কেন্দ্র পরিদর্শনে যান।

অভিযোগ, ওই অঙ্গনওয়াড়ি কেন্দ্রে গত মাসে উপভোক্তাদের মধ্যে চাল, আলু বন্টন করা হলেও সকলে তা পাননি। ১৮৪ জন উপভোক্তার মধ্যে ১০১ জন পেলেও বাকি ৮৩ জন কোনও খাদ্যপণ্য পাননি। ওইসব উপভোক্তার জন্য বরাদ্দকৃত চাল, ডাল ও আলু অঙ্গনওয়াড়ি কর্মী আত্মসাৎ করেছেন বলে গ্রামবাসীদের একাংশের অভিযোগ। বৃহস্পতিবার ওই অঙ্গনওয়াড়ি কেন্দ্রের সামনে তুমুল বিক্ষোভ দেখান গ্রামবাসীরা। খবর পেয়ে ঘটনাস্থলে ছুটে যান মেখলিগঞ্জের সিডিপিও জগদীশ রায়, উছলপুকুরি গ্রাম পঞ্চায়েতের প্রধান কালীমন বর্মন প্রমুখ। তাঁরা গিয়ে পরিস্থিতি সামাল দেন।

- Advertisement -

সিডিপিও জানিয়েছেন, ‘প্রাথমিকভাবে অভিযোগের সত্যতা মিলেছে। তাই ওই অঙ্গনওয়াড়ি কর্মীকে বরখাস্ত ও বদলি করার সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে।’ পঞ্চায়েত প্রধান কালীমন বর্মন বলেন, ‘ ওই অঙ্গনওয়াড়ি কর্মীর বিরুদ্ধে কোথাও কোনও লিখিত অভিযোগ নেই। তবুও কর্তব্যে গাফিলতি ও অনিয়মের প্রাথমিক প্রমাণ মেলায় তাঁর বিরুদ্ধে শাস্তিমূলক ব্যবস্থা নিয়েছে প্রশাসন।’

যদিও অঙ্গনওয়াড়ি কর্মী ভারতীদেবী সমস্ত অভিযোগ অস্বীকার করে বলেন, ‘সব অভিযোগ সত্য নয়। যদি কোথাও অন্যায় করে থাকি, কর্তৃপক্ষ যা শাস্তি দেবে,মাথা পেতে নেব।’