কোন পদ্ধতিতে মূল্যায়ন মাধ্যমিক-উচ্চমাধ্যমিকের? জেনে নিন

161
ছবি : সংগৃহীত

কলকাতা: করোনা সংক্রমণের কারণে এবছর বাতিল হয়েছে মাধ্যমিক ও উচ্চমাধ্যমিক। কীভাবে মাধ্যমিক এবং উচ্চমাধ্যমিক পরীক্ষার্থীদের মূল্যায়ন হবে, শুক্রবার তা ঘোষণা করল মধ্যশিক্ষা পর্ষদ এবং উচ্চমাধ্যমিক শিক্ষা সংসদ। মাধ্যমিকের মূল্যায়ন হবে নবম এবং দশম শ্রেণির ফলের ভিত্তিতে। এদিন মধ্যশিক্ষা পর্ষদের তরফে জানানো হয়েছে, কেউ যদি মূল্যায়নে সন্তুষ্ট না হয়, তবে পরিস্থিতি স্বাভাবিক হলে সে পরীক্ষায় বসতে পারবে। পরীক্ষায় বসলে সেই পরীক্ষার ফলই চূড়ান্ত। ৫০-৫০ শতাংশ হারে মাধ্যমিকের মার্কশিট তৈরি করা হবে। নবম শ্রেণির ফলের ওপর ৫০ শতাংশ নম্বর ও দশম শ্রেণির ইন্টারনাল পরীক্ষার ওপর থাকবে ৫০ নম্বর থাকবে। তার ভিত্তিতেই তৈরি হবে মাধ্যমিকের মার্কশিট।

পাশাপাশি উচ্চমাধ্যমিক পরীক্ষার্থীদের কীভাবে মূল্যায়ন হবে, সেটিও এদিন ঘোষণা করা হয়েছে উচ্চমাধ্যমিক শিক্ষা সংসদের তরফে। ২০১৯-এর মাধ্যমিকে চারটি বিষয়ে প্রাপ্ত সর্বোচ্চ নম্বরের ওপর ৪০ শতাংশ ও ২০২০-র একাদশ শ্রেণির বার্ষিক পরীক্ষা, দ্বাদশ শ্রেণির প্রোজেক্ট এবং প্র্যাক্টিকাল পরীক্ষায় প্রাপ্ত নম্বরের ওপর ৬০ শতাংশ নম্বর বরাদ্দ করা হয়েছে। ওই দুটি পরীক্ষায় প্রাপ্ত মোট নম্বরের ওপর ভিত্তি করেই উচ্চমাধ্যমিকের মার্কশিট তৈরি করা হবে। এক্ষেত্রেও মূল্যায়নে সন্তুষ্ট না হলে পরিস্থিতি স্বাভাবিক হলে পরীক্ষা দিতে পারবে পড়ুয়ারা। তবে সেক্ষেত্রে লিখিত পরীক্ষায় প্রাপ্ত নম্বরই চূড়ান্ত।

- Advertisement -