কিশোরীর অস্বাভাবিক মৃত্যুর ঘটনায় উত্তপ্ত চোপড়া, ঘটনাস্থল থেকে উদ্ধার কিশোরের দেহ

358

চোপড়া: চোপড়া থানার চতুরাগছ এলাকায় রবিবার এক কিশোরীর অস্বাভাবিক মৃত্যুর ঘটনায় এলাকায় ব্যাপক উত্তেজনা ছড়ায়। স্থানীয়দের অভিযোগ, এক মাধ্যমিক ছাত্রীকে বাড়ি থেকে তুলে নিয়ে গিয়ে ধর্ষণের পর খুনের চেষ্টা করে দুষ্কৃতীরা। সোমবার একই এলাকা থেকে এক কিশোরের দেহ উদ্ধার হয়। তাঁদের দাবি, সে এই ঘটনার মূল অভিযুক্ত। তবে ধর্ষণ না অন্য কোনও কারণে কিশোরীর মৃত্যু, ঘটনার নেপথ্যে কী কারণ রয়েছে তা নিয়ে তদন্ত শুরু করেছে পুলিশ।

চোপড়া থানার পুলিশ জানিয়েছে, এদিন সকালে এলাকার চা বাগানের একটি বড় নালা থেকে এক কিশোরের দেহ উদ্ধার হয়েছে। পুলিশ গিয়ে দেহটি উদ্ধার করে ইসলামপুর মহাকুমা হাসপাতাল মর্গে ময়নাতদন্তের জন্য পাঠিয়েছে।

- Advertisement -

প্রসঙ্গত, রবিবার এক মাধ্যমিক ছাত্রীর অস্বাভাবিক মৃত্যুর ঘটনায় অগ্নিগর্ভ হয়ে ওঠে উত্তর দিনাজপুরের চোপড়া। গতকাল সকাল থেকে দফায় দফায় জাতীয় সড়ক অবরোধ করে বিক্ষোভ শুরু হয়। পরিস্থিতি সামাল দিতে ঘটনাস্থলে পৌঁছায় পুলিশ।

এদিনও স্থানীয়রা রাজ্য সড়কে প্রতিবাদ বিক্ষোভ দেখাতে শুরু করেন। জানা গিয়েছে, বিজেপি নেতারা সেখানে যাওয়ার চেষ্টা করলে পুলিশ তাঁদেরও সেখানে যেতে বাধা দেন। চোপড়া থানার আইসি বিনোদ গজমের বলেন, এদিন এক কিশোরের দেহ উদ্ধার হয়েছে। ঘটনার তদন্ত শুরু হয়েছে।

এলাকার বিধায়ক হামিদুর রহমান বলেন, ‘গতকাল যে নিন্দনীয় ঘটনা ঘটেছে আজকে একই এলাকা থেকে একটি ছেলের দেহ পাওয়া গিয়েছে। স্থানীয়রা প্রথমে দেহটিকে দেখতে পেয়ে পুলিশকে খবর দিলে পুলিশ দেহটি উদ্ধার করে।’

ইসলামপুরের পুলিশ সুপার শচীন মক্কার বলেন, দেহটি ময়নাতদন্তের জন্য পাঠানো হয়েছে। এই মুহূর্তে কিছু বলা সম্ভব নয়। ময়নাতদন্তের রিপোর্ট হাতে পেলেই সন্ধ্যার দিকে তিনি প্রেস মিট করবেন বলে জানিয়েছেন।