তৃণমূল কার্যালয়ে র‍্যাশন কার্ডের সঙ্গে আধার লিংকের ব্যবস্থা, সরব বিজেপি

153

রামপুরহাট: র‍্যাশন কার্ডের সঙ্গে আধার লিংক বাড়িতে বসে করার জন্য দুয়ারে দুয়ারে যাওয়ার কথা ঘোষণা করেছে রাজ্য সরকার। অভিযোগ, অধিকাংশ ক্ষেত্রে ঠিকাদারের অধীনে কাজ করা লোকজন তৃণমূল কার্যালয়ে বসেই আধার লিংক করছে। বৃহস্পতিবার নলহাটি পুরসভার ১৬ নম্বর ওয়ার্ডের শিউরায় শাসক দলের অফিসে বসে কাজ করতে দেখা গিয়েছে ঠিকাদার সংস্থার কর্মীদের। ফলে অনেকে একটি নির্দিষ্ট দলের অফিসে গিয়ে আধার লিংক করাতে অনীহা দেখাচ্ছেন।

কেন্দ্র সরকার ঘোষণা করেছে র‍্যাশন কার্ডের সঙ্গে আধার লিংক করাতে হবে। দ্রুত এই কাজ শেষ করতে হবে। লাইন দিয়ে আধার লিংক করাতে গিয়ে মানুষ যাতে হয়রানির শিকার না হয় সেজন্য রাজ্য সরকার বাড়ি বাড়ি গিয়ে আধার লিংক করার নির্দেশ দিয়েছে। কিন্তু অধিকাংশ ক্ষেত্রেই ঠিকাদার সংস্থার লোকজন শাসক দলের অফিসে বসে সেই কাজ করছেন। এর ফলে কিছু মানুষ আধার লিংক করাতে অনীহা প্রকাশ করছেন।

- Advertisement -

স্থানীয় বাসিন্দা তৃণমূল কর্মী আনজামুল হক বলেন, ‘এখানে তৃণমূলের তরফে র‍্যাশন কার্ডের সঙ্গে আধার লিংক করা হচ্ছে। এর ফলে মানুষের সুবিধা হচ্ছে। আমাদের অফিসে এসে সহজেই আধার লিংক করে নিয়ে যাচ্ছে অনেকে।’ বিজেপির জেলা সভাপতি ধ্রুব সাহা বলেন, ‘বিরোধী দলের কর্মী সমর্থকেরা যাতে আধার লিংক করাতে না পারে সেই ব্যবস্থা করেছে তৃণমূল। কারণ শাসক দলের অফিসে আমাদের কেউ যাবে না। সেই সুযোগে বিরোধীদের র‍্যাশন কার্ড বাদ দেওয়ার চেষ্টা চালাবে। আমরা এর প্রতিবাদ করছি। বিষয়টি প্রশাসনের নজরে আনব। সরকার বাড়ি বাড়ি গিয়ে আধার লিংক করার যে প্রতিশ্রুতি দিয়েছিল তা যেন পালিত হয় তার আবেদন জানাব।’

নলহাটি-১ নম্বর বিডিও মধুমিতা ঘোষ বলেন, ‘বাড়ি বাড়ি গিয়ে আধার লিংক করার নির্দেশ দেওয়া হয়েছে রাজ্য সরকারের তরফে। আমরাও সেই নির্দেশ অনুসরণ করতে বলেছি। আধার লিংক কোনও রাজনৈতিক দলের তরফে করা হচ্ছে না। সরকার করছে। কেন দলীয় কার্যালয়ে বসে করা হল খোঁজ নিয়ে দেখছি।’