বাড়িতে র‍্যাশন পৌঁছে দেবে সরকার

367

নয়াদিল্লি: বাড়ির দরজায় র‍্যাশন পৌঁছে দেবে সরকার। গ্রাহকদের আর যেতে হবে র‍্যাশন দোকানে। এই উদ্দেশ্যে মঙ্গলবার দিল্লির মুখ্যমন্ত্রী অরবিন্দ কেজরিওয়াল সরকার ‘মুখ্যমন্ত্রী ঘর ঘর র‍্যাশন যোজনা’ প্রকল্পের অনুমোদেন দেন। আগামী ছয়-সাত মাসের মধ্যে এই প্রকল্পের কাজ শুরু হয়ে যাবে বলে জানান মুখ্যমন্ত্রী অরবিন্দ কেজরিওয়াল।

এদিন মুখ্যমন্ত্রী অরবিন্দ কেজরিওয়াল বলেন, ‘ গ্রাহকদের বাড়ির দরজায় র‍্যাশন পৌঁছে দেওয়ার জন্য আমাদের ক্যাবিনেট ‘মুখ্যমন্ত্রী ঘর ঘর র‍্যাশন যোজনা’ অনুমোদন মিলেছে।’ একই সঙ্গে কেজরিওয়াল বলেন, কেন্দ্র সরকার সহ দেশের প্রতিটি রাজ্যের সরকার নিজ নিজ রাজ্যের গরীব মানুষদের জন্য র‍্যাশন প্রদান করে। কিন্তু র‍্যাশন বন্টনের শুরু থেকেই তা গ্রহণ করতে নানা সময়ে বহু সমস্যার সম্মুখীন হতে হয়।’

- Advertisement -

কেজরিওয়াল বলেন, ‘বহুক্ষেত্রে দেখা যায় র‍্যাশন দোকান বন্ধ। আবার বহু ক্ষেত্রে দেখা যায়, র‍্যাশনের প্রদান করা সামগ্রী ভেজাল অথবা গ্রাহকদের বেশি দামে র‍্যাশন নিতে হচ্ছে। গত পাঁচ বছরে র‍্যাশন ব্যবস্থায় আমরা বহু উন্নতি করেছি। আজকে আমরা গ্রাহকদের বাড়ির দরজায় র‍্যাশন পৌঁছে দেওয়ার অনুমোদন দিয়েছি। এই প্রকল্পের সৌজন্যে, আর বেশি দিন গ্রাহকদের র‍্যাশন দোকানে যেতে হবে না। বরং, সম্মানের সঙ্গে গ্রাহকদের বাড়ির দরজায় র‍্যাশন পৌঁছে যাবে। যার পুরোটাই সরকার দ্বারা পরিচালিত হবে।’

এমনকী,এই প্রকল্পের মাধ্যমে এফসিআই(ফুড কর্পোরেশন অব ইন্ডিয়া)-র গুদাম থেকে বাছাই করা গমের আটা চূর্ণ সরবরাহ হবে। আটা ছাড়াও চাল,চিনিও বাড়ির দরজায় পৌঁছে দেওয়া হবে। তবে, গ্রাহকরা জদি নিজে র‍্যাশন দোকানে যেতে চান এবং সেখান থেকে র‍্যাশন সামগ্রী নিয়ে আসতে চান, সে সুযোগও থাকছে। সুতরাং, সরকার দ্বারা গ্রাহকের বাড়িতে র‍্যাশন পৌঁছে যাওয়া বা গ্রাহক নিজে র‍্যাশন দোকানে গিয়ে র‍্যাশন নিয়ে আসার দুটো ব্যবস্থায় চালু থাকছে। গ্রাহকরা পছন্দ মাফিক পদ্ধতিতে র‍্যাশন গ্রহণ করতে পারবে বলে জানান কেজরিওয়াল। তিনি বলেন, দিল্লিতে আগামী ছয়-সাত মাসের মধ্যে এই প্রকল্পের কাজ শুরু হয়ে যাবে। কেন্দ্রীয় সরকারের ‘এক দেশ এক র‍্যাশন কার্ড’প্রকল্পও একই দিনে শুরু হবে।