বর্ষার শুরুতেই ফুঁসছে নদী, বাঁধ নির্মাণে গ্রামবাসীরা

119

তুফানগঞ্জ: অসম-বাংলা সীমান্তের কাছাকাছি সংকোচ নদীর পাড় ভাঙন থেকে নিজেদের বাড়িঘর ও জমি রক্ষা করতে গ্রামবাসীরা নিজেরাই উদ্যোগী হলেন। বালির বস্তা নদীর পাড়ে ফেলে দিয়ে বাঁশের পাইলিং দিয়ে ভাঙ্গন রোধের চেষ্টা করছেন স্থানীয়রা। তুফানগঞ্জ-২ ব্লকের অন্তর্গত ফলিমারি গ্রাম পঞ্চায়েতের দক্ষিণ ফলিমারি গ্রামে চলছে এই কাজ। দক্ষিণ ফলিমারি গ্রামের পাশ দিয়েই বয়ে গিয়েছে পাহাড়ি নদী সংকোচ। বর্ষাতে সংকোচ নদী আগ্রাসী রূপ ধারণ করে।

স্থানীয়রা জানান, গত ২০ দিন ধরে এই কাজ চলছে। আরও ১৫ দিনের মতো সময় লাগবে বাঁধ মেরামতে। বর্ষার সবে শুরু, তার মধ্যেই বাড়তে শুরু করেছে নদীর জল। ভাঙন প্রতিরোধে তাই কাজে দ্রুততা আনতে তাই হাত কাজে হাত লাগিয়েছেন গ্রামের সমস্ত মানুষই। গ্রামবাসীদের এমন উদ্যোগকে সাধুবাদ জানিয়েছেন অনেকেই। তুফানগঞ্জ মহকুমা সেচ দপ্তর সূত্রে জানা গিয়েছে, সংকোচ নদীর ভাংগন রোধে অনেকখানি আমরা নদী বাঁধ দিয়েছি। আগামীদিনেও নদী বাঁধ তৈরী করা ভাবে সরকারি নিয়ম মেনে।

- Advertisement -