লিস্টনদের লড়াইয়ে মুগ্ধ রয় কৃষ্ণা

কলকাতা : এএফসি কাপের গ্রুপ পর্বের শেষ ম্যাচে বসুন্ধরা কিংসের বিরুদ্ধে জয় আসেনি। তবে কাঙ্ক্ষিত লক্ষ্য পূরণ করেছে অ্যান্তোনিও লোপেজ হাবাসের ছেলেরা। গ্রুপশীর্ষে থেকে প্রীতম কোটালরা ছিনিয়ে নিয়েছেন এএফসি কাপের ইন্টার জোনাল সেমিফাইনালের টিকিট। ২২ সেপ্টেম্বর শেষ চারের লড়াইয়ে রয় কৃষ্ণারা নামবেন উজবেকিস্তানের এফসি নাসাফ বনাম তুর্কমেনিস্তানের আহাল এফসির মধ্যে জয়ীর বিরুদ্ধে।

সেমিফাইনাল নিশ্চিত হতেই সবুজ-মেরুন শিবিরের মেজাজ বেশ ফুরফুরে। গোটা দলকে দুসপ্তাহের ছুটি দিয়ে স্পেনে ফিরেছেন অ্যান্তোনিও লোপেজ হাবাস। সঙ্গী হয়েছেন কোচিং স্টাফেরাও। ৭ সেপ্টেম্বরের পর কলকাতা ফের এএফসির সেমিফাইনালে প্রস্তুতি শুরু করবে এটিকে মোহনবাগান। দলের অধিকাংশ ফুটবলার মালদ্বীপ থেকে ফিরে আসলেও রয় কৃষ্ণা, ডেভিড উইলিয়ামসরা আরও দিনকয়েক সেখানেই থাকার ব্যাপারে মনস্থির করেছেন।

- Advertisement -

তবে মালদ্বীপ থেকে ফিজিতে ফিরছেন না কৃষ্ণা। ছুটি কাটিয়ে কলকাতায় শিবিরে যোগ দেওয়ার সম্ভাবনাই প্রবল। ইতিমধ্যে সোশ্যাল মিডিয়ায় বার্তা দিয়েছেন সবুজ-মেরুন অধিনায়ক। কৃষ্ণা বলেছেন, এএফসির ইন্টার জোনাল সেমিফাইনালের টিকিট অর্জন করতে পেরে ভালো লাগছে। কাজটা মোটেই সহজ ছিল না। অনেক প্রতিকূলতার বিরুদ্ধে লড়তে হয়েছে। দলের সতীর্থদের পারফরমেন্সে আমি মুগ্ধ এবং গর্বিত। পাশাপাশি লড়াকু মনোভাব বজায় রেখে শেষ চারের যুদ্ধে জয়ের স্বপ্ন উসকে দিয়েছেন সবুজ-মেরুন সমর্থকদের নয়নের মণি।

কৃষ্ণা, ডেভিড উইলিয়ামসদের ভিড়ে নজর কেড়ে নিয়েছেন সদ্য এটিকে মোহনবাগান জার্সি গায়ে চাপানো লিস্টন কোলাসোও। গত মরশুমে আইএসএলে হায়দরাবাদ এফসির হয়ে যেখানে শেষ করেছিলেন, সবুজ-মেরুনের হয়ে সেখান থেকেই শুরু করেছেন গোয়ানিজ তারকা। তিনি বলেন, আরও ভালো খেলতে পারতাম। তবে হতাশ নই। সামনে আরও কঠিন চ্যালেঞ্জ রয়েছে। তা জিততে হবে।