বাংলাদেশে ইসকন মন্দিরে হামলা, চলছে সংখ্যালঘু নির্যাতন

218

ঢাকা ও কলকাতা: কুমিল্লায় কোরান অবমাননার অভিযোগে উত্তপ্ত বাংলাদেশ। মণ্ডপে হামলা চালানোর পাশাপাশি চলছে সংখ্যালঘু নির্যাতন। যদিও ব্যবস্থা নেওয়ার আশ্বাস দিয়েছে শেখ হাসিনা সরকার। তবে বাংলাদেশে সংখ্যালঘু নির্যাতনে চিন্তিত পশ্চিমবঙ্গের বাসিন্দারা।

কোরান অবমাননার অভিযোগ তুলে বুধবার দিনের বেলা কুমিল্লার বেশ কয়েকটি পূজা মণ্ডপে হামলা চালানো হয়। সোশ্যাল মিডিয়ায় উস্কানির জেরে বিষয়টি আরও জটিল আকার নেয়। সেদিন রাতে নোয়াখালির হাতিয়া এবং চট্টগ্রামের বাঁশখালিতে মন্দিরে হামলা চালায় উন্মত্ত জনতা। বুধবার রাতের হামলায় চারজনের মৃত্যু হয় বলে সংবাদমাধ্যম সূত্রের খবর।

- Advertisement -

সেই ঘটনার পর থেকে বাংলাদেশের সংখ্যালঘুদের ওপর নির্যাতন চলছে। শুক্রবার অর্থাৎ বিজয়া দশমীতে নোয়াখালি জেলার ইসকন মন্দিরে হামলা চালানো হয়েছে বলে অভিযোগ। পাশাপাশি পার্থ দাস নামে মন্দিরের এক সদস্যকে খুন করা হয়েছে। হামলার বিষয়টি টুইটে জানিয়েছে ইসকন কর্তৃপক্ষ। হাসিনা সরকারের কাছে তারা সংখ্যালঘুদের পর্যাপ্ত নিরাপত্তা দেওয়া ও হামলাকারীদের বিরুদ্ধে দ্রুত ব্যবস্থা নেওয়ার আবেদন জানিয়েছে।

বাংলাদেশে ইসকন মন্দিরে হামলা, চলছে সংখ্যালঘু নির্যাতন| Uttarbanga Sambad | Latest Bengali News | বাংলা সংবাদ, বাংলা খবর | Live Breaking News North Bengal | COVID-19 Latest Report From Northbengal West Bengal India

সংবাদমাধ্যম সূত্রের খবর, বৃহস্পতিবার অর্থাৎ নবমীর রাতে বাংলাদেশের একাধিক পুজোমণ্ডপে হামলা চালানো হয়েছে। অভিযোগ, শুক্রবার বিকেলেও কয়েকজন দুষ্কৃতী চট্টগ্রাম শহরের একটি পুজো মণ্ডপে হামলা চালাতে আসে। সেময় পুলিশ এবং স্থানীয় বাসিন্দারা তাদের বাধা দেন। এছাড়া চট্টগ্রামের বাঁশখালি, চাঁদপুরের হাজিগঞ্জ, শিবগঞ্জ ও কক্সবাজারের পেকুয়ার একাধিক মন্দিরেও হামলা হয়েছে। সোশ্যাল মিডিয়ায় উসকানিমূলক পোস্টের জেরে সমস্যা আরও বেড়েছে বলে অভিযোগ। ঘটনার জেরে রীতিমতো আতঙ্কিত বাংলাদেশের সংখ্যালঘুরা।

এদিকে, কুমিল্লার মণ্ডপে হামলার ঘটনায় দ্রুত তদন্তের আশ্বাস দিয়েছেন বাংলাদেশের প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। তিনি জানিয়েছেন, দোষীদের উপযুক্ত শাস্তি দেওয়া হবে। তাদের চিহ্নিত করা হচ্ছে। 

অন্যদিকে, ঘটনার প্রতিবাদে ইতিমধ্যেই সরব হয়েছেন পশ্চিমবঙ্গের তৃণমূল কংগ্রেস নেতা কুণাল ঘোষ। মণ্ডপে হামলার বিষয়টি ভারতের প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদির নজরে এনেছেন পশ্চিমবঙ্গের বিরোধী দলনেতা শুভেন্দু অধিকারী। তিনি এবিষয়ে মোদিকে চিঠি দিয়েছেন।