বিজেপি করার ‘অপরাধে’ বাবা-ছেলেকে খুনের চেষ্টা, অভিযুক্ত তৃণমূল

63
সংগৃহীত

রায়গঞ্জ: বিজেপি করার ‘অপরাধে’ বাবা ও ছেলেকে খুনের চেষ্টা করল তৃণমূল আশ্রিত দুষ্কৃতী। শনিবার রাত ন’টা নাগাদ রায়গঞ্জ থানার গৌরী গ্রাম পঞ্চায়েতের বিরাহিমখন্ড গ্রামে ঘটনাটি ঘটেছে। দুষ্কৃতীদের হামলায় জখম হয়েছেন বীরেন্দ্রনাথ সিংহ (৬০) ও পঞ্চানন সিংহ (২৬)। তাঁদের বাড়ি গৌরী গ্রাম পঞ্চায়েতের ইটাল গ্রামে। স্থানীয় বাসিন্দাদের অভিযোগ, দুষ্কৃতীরা একের পর এক গুলি চালানোয় তাঁরা সামনে যেতে পারেননি। এদিন রাতে ঘটনাকে কেন্দ্র করে এলাকায় উত্তেজনা ছড়ায়। খবর পেয়ে ঘটনাস্থলে যায় রায়গঞ্জ থানার পুলিশ। পুলিশ জখমদের উদ্ধার করে রায়গঞ্জ মেডিকেল কলেজ ও হাসপাতালে ভর্তি করে।

পরিবার সূত্রে জানা গিয়েছে, পঞ্চানন সিংহ ভোটের দিন ইটাল বুথে পোলিং এজেন্ট ছিলেন। পরিবারটি বিজেপি করে। এদিন শ্যামপুরহাট থেকে বাজার করে বাড়ি ফিরছিলেন বাবা ও ছেলে। বিরাহিমখন্ড এলাকায় রাস্তা আগলে একদল দুষ্কৃতী তাঁদের বেধড়ক মারধর করে বলে অভিযোগ।

- Advertisement -

বিজেপির জেলা নেতা বিশ্বজিৎ লাহিড়ি বলেন, ‘আমাদের দুজন কর্মীকে বেধড়ক মারধর করেছে তৃণমূল আশ্রিত একদল দুষ্কৃতী। ওই দুষ্কৃতীদের বিরুদ্ধে একাধিক খুনের অভিযোগ রয়েছে। তবুও ভোটের আগে তাদের গ্রেপ্তার করেনি পুলিশ। আমাদের দুই কর্মীকে তারা খুনের চেষ্টা করেছে।’

অন্যদিকে, তৃণমূলের ব্লক সভাপতি মানস ঘোষ বলেন, ‘এই মারপিটের সঙ্গে তৃণমূলের কোনও যোগ নেই। অন্য কোনও কারণে গন্ডগোল হয়ে থাকতে পারে। তৃণমূলকে বদনাম করার জন্য বিজেপি ইচ্ছাকৃতভাবে অপপ্রচার করছে।’

পুলিশ সুপার সুমিত কুমার বলেন, ‘গুলি চালানোর কোনও ঘটনা ঘটেনি। এলাকায় পুলিশ রয়েছে। ঘটনার তদন্ত চলছে।’