রোগীর পরিবারের কাছ থেকে টাকা ছিনতাইয়ের চেষ্টা, গ্রেপ্তার এক

144

রায়গঞ্জ: রোগীর পরিবারের কাছ থেকে টাকা ছিনতাই করে পালানোর সময় অ্যাম্বুল্যান্স চালকদের হাতে ধরা পড়ল অভিযুক্ত। তারপরেই শুরু হয় গণপিটুনি। ঘটনাটি সোমবার ভোররাতে রায়গঞ্জ মেডিকেল কলেজ হাসপাতাল ক্যাম্পাসের। পরে রায়গঞ্জ থানার পুলিশ অভিযুক্তকে গ্রেপ্তার করে ।

রোগীর পরিজনরা জানান, এদিন তাঁরা হাসপাতাল করিডরে ঘুমিয়েছিলেন, সেই সময়ই একদল দুষ্কৃতী তাঁদের টাকা ছিনতাই করে পালানোর চেষ্টা করে। অভিযুক্ত দুইজন পালিয়ে গেলেও সেখানে থাকা অ্যাম্বুল্যান্স চালকরা একজনকে ধরে ফেলে। তারপরেই শুরু হয় গণপিটুনি। পরে পুলিশ এসে অভিযুক্তকে গ্রেপ্তার করে।

- Advertisement -

পুলিশ সূত্রে খবর, ধৃত যুবকের নাম সুজন পাল। বাড়ি রায়গঞ্জ শহরের অশোকপল্লী এলাকায়। অভিযুক্ত ব্যক্তি পেশায় টোটো চালক হলেও তার বিরুদ্ধে রায়গঞ্জ থানায় একাধিক চুরি ও ছিনতাইয়ের মামলা রয়েছে। একসময় সুজন পাল বোমা তৈরি করত বলে অভিযোগ। ২০১৬ সালে তার বাড়ি থেকে বোমের মশলা ও সুতলি বাজেয়াপ্ত করেছিল পুলিশ। বর্তমানে ব্রাউন সুগারে আসক্ত ওই যুবক চুরি-ছিনতাইয়ের সঙ্গে যুক্ত বলেও জানায় পুলিশ। এদিন থেকে হাসপাতাল ক্যাম্পাসে পুলিশ ফাঁড়ি চালু করেছেন রায়গঞ্জ জেলা পুলিশ সুপার সুমিত কুমার ও রায়গঞ্জ থানার আইসি সুরোজ থাপা। কোনও অপ্রীতিকর ঘটনা যাতে না ঘটে তার জন্য সব সময় দুজন সাব-ইন্সপেক্টর, একজন এএসআই ও চারজন কনস্টেবল মোতায়েন থাকবে বলে জানিয়েছেন রায়গঞ্জ জেলা পুলিশ সুপার। তবে এনিয়ে হাসপাতাল কতৃপক্ষের কোনও প্রতিক্রিয়া সামনে আসেনি।