অভাবের তাড়নায় চুরির চেষ্টা, বন্ধ চা বাগানের যুবককে বিস্কুট খাইয়ে থানায় দিল রাঙ্গালিবাজনা 

রাঙ্গালিবাজনা: সাইকেল চুরি করে পালানোর সময় এলাকাবাসীর তাড়া খেয়ে পুকুরের জলে ঝাঁপ দিয়েছিল ‘চোর’। তাঁকে জল থেকে তুলে বিস্কুট খাইয়ে শুকনো নয়া কাপড়চোপড় পরিয়ে পুলিশের হাতে তুলে দিলেন রাঙ্গালিবাজনা চৌপথির ব্যবসায়ী ও সাধারণ মানুষ।

শনিবার বিকেল তিনটে নাগাদ রাঙ্গালিবাজনা চৌপথিতে সাইকেল চোর ধরা পড়ার খবর পেয়ে ছুটে যান অনেকেই। তবে, মাদারিহাটের বন্ধ চা বাগান মুজনাইয়ের যুবকটির শুক্রবার থেকে খাওয়া জোটেনি শোনার পর ফের বন্ধ চা বাগানের বাসিন্দাদের সমস্যা নিয়ে চর্চা শুরু হয় এলাকায়। এমনকি যার দোকান থেকে সাইকেল চুরি করে পালাতে যাচ্ছিল যুবকটি, সেই দোকানের মালিক রাহুল আমিন বলেন, আমি থানায় অভিযোগ দায়ের করব না। কারণ, বন্ধ চা বাগানের মানুষ সমস্যায় আছেন।

- Advertisement -

রাঙ্গালিবাজনা চৌপথির ব্যবসায়ীরা জানান, একটি সাইকেল মেরামতির দোকান থেকে সাইকেল চুরি করে পালাতে যাচ্ছিল বন্ধ চা বাগান মুজনাইয়ের যুবকটি। তাড়া খেয়ে সে ঝাঁপিয়ে পড়ে এশিয়ান হাইওয়ের পাশের একটি পুকুরে। ওই অবস্থাতেই তাঁকে ঘিরে ফেলেন শ’দেড়েক মানুষ। উপায়ান্তর না দেখে কচুরিপানা ভর্তি পুকুরে গলা জলেই দাঁড়িয়ে থাকে সে।

এরপর উৎসাহীদের কয়েকজন তাঁকে টেনে হিঁচড়ে তোলে জল থেকে। কিন্তু আপাদমস্তক জলে ভিজে কাহিল হয়ে পড়া যুবকটির করুণ অবস্থা দেখে মন নরম হয় অনেকেরই। বিশেষ করে যুবকটি শুক্রবার থেকে খাওয়া জোটেনি জানানোর পর চুপ করে যান অনেকেই। এগিয়ে আসেন স্থানীয় ব্যবসায়ী  তথা সিপিএমের মাদারিহাট এরিয়া কমিটির সদস্য বশির আহমেদ।

ক্ষুধার্ত যুবকটিকে বিস্কুট, জল খাওয়ানোর পর বাড়ি থেকে তাঁর নিজের প্যান্ট এনে পরতে দেন। একটি নতুন টি শার্টও পরতে দেন তাঁকে। ততক্ষণে মাদারিহাট থানার পুলিশ ঘটনাস্থলে পৌঁছেছে। যুবককে উদ্ধার করে থানায় নিয়ে যায় পুলিশ।

এলাকার ব্যবসায়ী বুদ্ধদেব সূত্রধর বলেন, ছেলেটিকে দেখে চোর মনে হয় না। হয়ত অভাবের তাড়নায় চুরি করতে যাচ্ছিল। বশির আহমেদ বলেন, বন্ধ চা বাগানের বাসিন্দারা সমস্যায় রয়েছেন। তার ওপর লকডাউনে কাজ পাচ্ছেন না তাঁরা। যুবকটির অবস্থা দেখে খারাপ লাগছিল। ভেজা কাপড়ে শরীর খারাপ হত। তাই শুকনো কাপড়চোপড় দিই। সরকারের উচিত, বন্ধ চা বাগানগুলি খোলার ব্যবস্থা করা।

মাদারিহাট থানার ওসি টিএন লামা বলেন, যুবকটিকে উদ্ধার করে থানায় নিয়ে আসা হয়েছে। বিষয়টি তদন্ত করে দেখা হবে।