দায়িত্ব বাড়ল অভিষেকের, সর্বভারতীয় যুব সভাপতি পদে সায়নী

277

উত্তরবঙ্গ সংবাদ নিউজ ডেস্ক: দলে আরও গুরুত্ব বাড়ল অভিষেক বন্দ্যোপাধ্যায়ের। সরে দাঁড়ালেন যুব সভাপতির পদ থেকে। দলীয় সূত্রে খবর, তৃণমূল কংগ্রেসের সর্বভারতীয় সাধারণ সম্পাদকের দায়িত্ব দেওয়া হল তাঁকে। সেই পদে ছিলেন সুব্রত বক্সি। অন্য়দিকে, অভিষেক বন্দ্যোপাধ্যায়ের ছেড়ে যাওয়া পদ অর্থাৎ সর্ব ভারতীয় যুব তৃণমূল কংগ্রেসের সভানেত্রী হিসেবে নিয়োগ হলেন সায়নী ঘোষ।

তৃতীয়বার বিধানসভা নির্বাচনে জয় পাওয়ার পরেই সাংগঠনিক শক্তি মজবুত করার লক্ষ্য স্থির করেন তৃণমূল সুপ্রিমো মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। সেই মোতাবেক আজ শনিবার কোর কমিটির বৈঠক সারলেন তৃণমূল সুপ্রিমো। দলীয় সূত্রে খবর, এক ব্যক্তি এক পদ নীতিতে এবার পথ চলতে চান সুপ্রিমো। সেই মোতাবেক উচুতলা থেকে নীচুতলা অবধি আমূল রদবদল করা হয়। দলীয় সূত্রে খবর, কুনাল ঘোষকে রাজ্য তৃণমূলের সাধারণ সম্পাদক পদে নিযুক্ত করা হয়েছে। আইএটিটিইউসি-র জাতীয় সভানেত্রীর দায়িত্ব দেওয়া হল দোলা সেনকে। অন্যদিকে, রাজ্যর দায়িত্ব বর্তায় ঋতব্রত বন্দ্যোপাধ্যায়ের কাঁধে। সাংস্কৃতিক সেলের প্রাধানের দায়িত্ব দেওয়া হয়েছে রাজ চক্রবর্তীকে।

- Advertisement -

রাজনৈতিক মহলের অনুমান, সাংগঠনিক শক্তি বৃদ্ধির লক্ষ্যে নতুনের ওপর ভরসা রাখলেন তৃণমূল সুপ্রিমো মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। রাজ্য এবং জাতীয় স্তরে একাধিক নতুন মুখ উঠে আসাতেই রাজনৈতিক মহলের সেই অনুমানে একপ্রকার সিলমোহর পড়ল এদিন। জানা গিয়েছে, ভোটের ফলাফলের নিরিখে রাজ্যের আট জেলার সভাপতি পদে বদল আনা হয়েছে। তবে, কে কে নয়া সভাপতির দায়িত্ব পেতে চলেছেন তা এখনও খোলসা করেননি দলীয় নেতৃত্বরা।

এদিন কোর কমিটির বৈঠকে দলীয় নেতৃত্বদের উদ্দেশ্যে কড়া বার্তা দিলেন তৃণমূল সুপ্রিমো মমতা বন্দ্যোপাধ্য়ায়। তিনি স্পষ্ট জানান, ভাবমূর্তি স্বচ্ছ রাখতে হবে। কয়লা, গোরু পাচারে জড়ানো যাবে না। একইসঙ্গে স্পষ্ট করেন, কথায় কথায় লালবাতির গাড়িও ব্যবহার করা যাবে না।