বিরাটদের কার্যত হুমকি দিলেন বাবর

নয়াদিল্লি : বিলেতের মাটিতে ভারতীয় রূপকথায় মন্ত্রমুগ্ধ ক্রিকেটমহল।

মহম্মদ সিরাজ, মহম্মদ সামি, জসপ্রীত বুমরাহদের দুরন্ত ক্রিকেটে প্রশংসা ঝরে পড়ছে। লর্ডস জয়ের যে উৎসবের মাঝেই আগামী টি২০ বিশ্বকাপে পাকিস্তানের সঙ্গে বিরাটদের মহারণের তারিখও গতকাল ঘোষণা করেছে আইসিসি। ২৪ অক্টোবর পাক ম্যাচ দিয়ে বিশ্বকাপ অভিযান শুরু ভারতীয় দলের। আর এই ম্যাচ ঘিরে আসমুদ্র হিমাচলই নয়, ওয়াঘার ওপাড়েও উৎসাহের ঢেউ। দীর্ঘ প্রতীক্ষার পর ফের ভারতের বিরুদ্ধে ম্যাচ নিয়ে উত্তেজিত বাবর আজমও। তবে বিরাটদের কার্যত হুংকার দিতেও ছাড়লেন না পাক অধিনায়ক।

- Advertisement -

বাবরের মতে, ভারত ম্যাচ সহ বিশ্বকাপে তারাই সুবিধা পাবে। সংযুক্ত আরব আমিরশাহি তাদের দ্বিতীয় হোম। ফলে সেই হোম অ্যাডভান্টেজ নিয়ে ২৪ তারিখ নামবেন ভারত-বধে এবং নিজেদের শ্রেষ্ঠদ্ব পুনরুদ্ধারে। আইসিসি ওয়েবসাইটে বাবর বলেছেন, পাকিস্তানের জন্য আসন্ন টি২০ বিশ্বকাপ কার্যত হোম-ইভেন্ট। কারণ গত দশ বছর ধরে ইউএই আমাদের ঘরের মাঠ। এখানে আমরা বিশ্বের তাবড় দেশকে হারিয়ে টি২০ র‌্যাংকিংয়ের শীর্ষে পৌঁছেছি। ইউএই-তে বিশ্বকাপ হওয়ায় আমরা খুশি এবং উত্তেজিত। লক্ষ্য একটাই সংক্ষিপ্ততম ফর্ম্যাটে নিজেদের শ্রেষ্ঠত্ব পুনরুদ্ধার।

বাবর হোম-অ্যাডভান্টেজের দাবি জানালেও, গৌতম গম্ভীর আবার অন্যরকম যুক্তির কথা শোনালেন। অভিষেক টি২০ বিশ্বকাপের অন্যতম নায়কের মতে শুরুতেই পাক-ম্যাচ পড়ায় লাভবান হবে বিরাট ব্রিগেড। গম্ভীর বলেন, ২০০৭-এ বিশ্বকাপ আমাদের প্রথম ম্যাচ ছিল স্কটল্যান্ডের সঙ্গে। বৃষ্টিতে ম্যাচটা হয়নি। পরের ম্যাচেই পাকিস্তান। কার্যত ওটাই আমাদের প্রথম ম্যাচ হয়ে দাঁড়ায় এবং আমরা জিতি। আত্মবিশ্বাস একদিকে যেমন বাড়িয়ে দিয়েছিল, তেমনই হাইভোল্টেজ এই ম্যাচ নিয়ে পরে ভাবতে হয়নি। তাই ফোকাসটা ঠিকঠাক ছিল।