মোমবাতি থেকে ঘরে আগুন, পুড়ে মৃত্যু শিশুর

236

আসানসোল: মধ্যরাতে মোমবাতির আগুনে পুড়ে মৃত্যু হল দুই বছরের শিশুর। একই সঙ্গে অগ্নিদগ্ধ হলেন আরও তিন জন। বৃহস্পতিবার আসানসোল রানিগঞ্জের আমড়াসোঁতা গ্রাম পঞ্চায়েতের বাঁশরা ভুঁইয়া পাড়ার ঘটনা। মৃত শিশুর নাম আয়ুষ ভূঁইয়া।

পুলিশ ও স্থানীয় সূত্রে খবর, বৃহস্পতিবার গভীর রাতে প্রবল বৃষ্টি হওয়ার কারণে রানিগঞ্জের আমড়াসোঁতা পঞ্চায়েতের বাঁশরা ভুঁইয়া পাড়া বিদ্যুৎ সংযোগ বিচ্ছিন্ন হয়ে যায়৷ ঘরের অন্ধকার দূর করতে ভুঁইয়া পাড়ার পেশায় দিনমজুর ছটু ভুঁইয়ার স্ত্রী প্রীতি ভুঁইয়া মোমবাতি জ্বালায়৷ অসাবধানতা বশত মোমবাতির থেকে গোটা ঘরে আগুন ছড়িয়ে পড়ে৷ বাড়িতে থাকা প্রীতি ভুঁইয়া(২৩), তার ৩ বছর অরবিন্দ ভুঁইয়া, ২ বছরের আয়ূষ ভুঁইয়া ও প্রীতির বোন দুর্গা ভুঁইয়া(১৩) অগ্নিদগ্ধ হয়৷ সেই সময় ছটু ভুঁইয়া বাড়িতে ছিলেন না৷ খবর পেয়ে প্রতিবেশীরা আহতদের উদ্ধার করে চিকিৎসার জন্য আসানসোল জেলা হাসপাতালে পাঠায়। সেখানে চিকিৎসক আয়ুষকে মৃত বলে ঘোষণা করেন৷ প্রীতিকে জেলা হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। হাসপাতাল সূত্রে জানা গিয়েছে, তার অবস্থা আশঙ্কাজনক। বাকি দু’জনকে প্রাথমিক চিকিৎসার পরে ছেড়ে দেওয়া হয়।

- Advertisement -

আমরাসোঁতা গ্রাম পঞ্চায়েতের প্রধান নিমেষ বাউরি বলেন, ছটু ভুঁইয়ার মাটির বাড়ি ছিল। টালি ও প্লাস্টিকের ছাউনি ছিল। এই এলাকায় প্রায় এইরকম একশোটি বাড়ি আছে। সেখানে ইসিএলের বিদ্যুতের সংযোগ আছে। বৃহস্পতিবার রাতে বৃষ্টি হচ্ছিল। শেষ পর্যন্ত দীর্ঘসময় বিদ্যুৎ ছিল না। শুনেছি, ওই বাড়িতে মোমবাতি জ্বালিয়ে ছিল। রাত একটা নাগাদ সেই মোমবাতির থেকেই আগুন ছড়িয়ে পড়ে। আমি নিজে শুক্রবার ওই বাড়িটা দেখতে গেছিলাম। ওই এলাকার মানুষের সঙ্গেও কথা বলেছি। প্রাথমিক তদন্তের পরে পুলিশ জানায়, মোমবাতি থেকে বাড়িতে আগুন লেগে এই ঘটনা ঘটেছে।