তুফানগঞ্জ : সবুজ সাথী প্রকল্পের প্রায় হাজারের উপর সাইকেল খোলা আকাশের নীচে পড়ে বৃষ্টিতে ভিজছে। তুফানগঞ্জ-১ ব্লকের অন্দরান ফুলবাড়ি-২ গ্রাম পঞ্চায়েতের কালীবাড়ি এলাকায় কিষান মান্ডিতে সবুজ সাথী প্রকল্পের সাইকেল ফিটিং করা হয়ে থাকে।

ব্লকের সমস্ত বিদ্যালয়ে জন্য বরাদ্দ সাইকেল কিষান মান্ডি থেকেই প্রশাসনের হাতে তুলে দেওয়া হয়। পরে তা প্রশাসন থেকে স্কুলগুলোতে সরাসরি পাঠিয়ে দেওয়া হয়। কয়েকজন সাইকেল মেকাররা দিনরাত কয়েক হাজার সাইকেল ফিটিং করে চলেছেন। ফিটিংস হওয়ার পর কিষান মান্ডির প্রশাসনিক ভবনের সামনে খোলা আকাশের নীচে সাইকেলগুলি রেখে দেওয়া হচ্ছে। পুজোর একমাস বিদ্যালয় ছুটি থাকায় সমস্ত সাইকেল কিষান মান্ডিতেই জমা হচ্ছে। প্রতিদিনই ফিটিংস হওয়া সাইকেলের সংখ্যা বেড়েই চলেছে। সেগুলি বৃষ্টিতে ভেজার কারণে তার যন্ত্রাংশ ক্ষতিগ্রস্ত হওয়ার আশঙ্কা রয়েছে। স্থানীয় বাসিন্দা সামিদুল মিয়াঁ বলেন, সবুজ সাথীর সাইকেল ছাদের নীচেই রাখা ভালো। এভাবে খোলা আকাশের নীচে অবহেলায় পড়ে থাকলে অনেক যন্ত্রাংশই ক্ষতিগ্রস্ত হতে পারে। এ ব্যাপারে প্রশাসনকে নজর দিতে হবে।

তুফানগঞ্জ-১ ব্লকের উন্নয়ন আধিকারিক শুভজিৎ দাশগুপ্ত বলেন, সাইকেলগুলি কোম্পানির দায়িত্বে রয়েছে। খোলা আকাশের নীচে থাকলে সেটা সাইকেল কোম্পানির ব্যাপার। সাইকেল নেওয়ার সময় চেক করেই নেওয়া হয়। খারাপ সাইকেল কোম্পানিরই থেকে যাবে। তুফানগঞ্জের মহকুমাশাসক অরবিন্দ ঘোষ বলেন, সাইকেলগুলো খোলা আকাশের নীচে রাখাটা ঠিক নয়। এ ব্যাপারে খোঁজ নিয়ে দেখব।