জলকাদা পেরিয়ে পুজো দেখতে যাবে বর্মনপাড়া

363

মাদারিহাট, ২৪ সেপ্টেম্বর : মাদারিহাট-বীরপাড়া ব্লকের মধ্য খয়েবাড়ি এলাকার বর্মনপাড়া থেকে বাঙ্গাবাড়ি পর্যন্ত  চার কিলোমিটার রাস্তার বেহাল অবস্থায় স্থানীয়দের মধ্যে ক্ষোভ দেখা দিয়েছে। পুজোর আর মাত্র কয়েদিন বাকি। কিন্তু, রাস্তা সংস্কার না হওয়ায় এবার জলকাদা পেরিয়ে পুজো দেখতে যেতে হবে এলাকার কয়েক হাজার বাসিন্দাকে। স্থানীয় সূত্রে জানা গিয়েছে, প্রায় দুবছর থেকে এই রাস্তার সংস্কার হয়নি। রাস্তার গর্তগুলিতে জল জমে কাদা হয়ে গিয়েছে। ফলে ওই রাস্তায় টোটো, সাইকেল কিংবা হেঁটে যেতেও সমস্যা হচ্ছে।

স্থানীয় বাসিন্দা মহেন্দ্র ছেত্রী বলেন, দীর্ঘদিন রাস্তা সংস্কার না হওয়ায় আমাদের দুর্ভোগ হচ্ছে। পুজোর মাত্র কয়েকদিন বাকি। এরমধ্যে রাস্তা মেরামত হওয়ার কোনো সম্ভাবনা নেই। জলকাদা পেরিয়ে এবার পুজোয় যেতে হবে। তবে সবচেয়ে সমস্যা হয় কেউ অসুস্থ হয়ে পড়লে। এই রাস্তায় টোটো, রিকশা, গাড়ি কিছুই আসতে চায় না। তাই রোগীকে নিয়ে সমস্যায় পড়তে হয়। স্থানীয় টোটোচালক সরেস রায় বলেন, কাদা এবং বড়ো বড়ো গর্ত থাকায় কিছুটা পথ যাওয়ার পর আর টোটো নিয়ে যাওয়া যায় না। খানাখন্দে ভরা এই রাস্তায় বাইক এবং সাইকেল নিয়ে চলতে ভয় হয়। স্থানীয় বাসিন্দা শংকর লামা বলেন, বাঙ্গাবাড়ির বাসিন্দাদের মাদারিহাট সহ অন্যত্র যাওয়ার অন্যতম প্রধান পথ এটি। যোগাযোগ ব্যবস্থা ভালো না থাকায় এলাকার কয়েকশো বাসিন্দা বেশিরভাগ সময় এই পথ হেঁটেই যাতায়াত করেন। এছাড়া, খাড়িয়াপাড়া থেকে ছেকামারি টাওয়ার বাজার যাওয়ার মূল রাস্তাও এটিই। কিন্তু রাস্তার বেহাল অবস্থার জন্য ওই এলাকার বাসিন্দাদেরও ভোগান্তি পোহাতে হয়। অপর স্থানীয় বাসিন্দা রমানন্দ বর্মন, সায়ের আলিদেরও একই অভিযোগ। তাঁদের বক্তব্য, পঞ্চায়েকে বারবার এব্যাপারে অভিযোগ করেও কোনো সুরাহা হয়নি। স্থানীয় পঞ্চায়েত সদস্য কিশোর মুন্ডা বলেন, রাস্তার সমস্যার বিষয়টি খোঁজ নিয়ে দেখব। মাদারিহাট গ্রাম পঞ্চায়েত প্রধান মামনি বসুমাতা শৈব বলেন, স্থানীয় পঞ্চায়েত সদস্য যদি এই রাস্তাটি আ্যকশন প্ল্যানে দিয়ে থাকেন তাহলে তাড়াতাড়ি কাজ হবে।

- Advertisement -