পিচ উঠে কঙ্কাল বেরিয়েছে রাস্তার, ক্ষোভ তুলসীহাটায়

250

হরিশ্চন্দ্রপুর : সংস্কারের অভাবে বেহাল হয়ে পড়েছে তুলসীহাটা মাস্তান মোড় থেকে ভাটোলগামী জ্যোৎস্না মোড় পর্যন্ত প্রধানমন্ত্রী গ্রাম সড়ক যোজনার রাস্তাটি। এই ঘটনায় ক্ষোভে ফুটছেন এলাকার বাসিন্দারা। এলাকার বাসিন্দা গণেশ পোদ্দার, রিকি পোদ্দারদের অভিযোগ, দীর্ঘদিন ধরে রাস্তাটি খারাপ হয়ে আছে। অনেকদিন ধরেই আমরা প্রশাসনের দৃষ্টি আকর্ষণ করেছি। কিন্তু কোনো সুরাহা হয়নি।

এ প্রসঙ্গে এলাকার বাসিন্দা বিনোদ গুপ্তা বলেন, ২০০২ সালে তৎকালীন সাংসদ প্রিয়রঞ্জন দাশমুন্সীর উদ্যোগে এই রাস্তাটি নির্মাণ করা হয়েছিল। ২১ কিলোমিটার দীর্ঘ এই রাস্তাটি তুলসীহাটা থেকে কস্তুরিয়া, মাখনা, কুইলপাড়া, ছোটো ভাটোল, গৌরীপুর, বড়ো কস্তুরিয়া, ভাটোল হয়ে কুশিদার রাস্তার সঙ্গে যুক্ত করা হয়। দীর্ঘদিনের সংস্কারের অভাবে রাস্তাটি বেহাল হয়ে পড়েছে। রাস্তাটি মেরামত হলে উপকৃত হবে এই বিস্তীর্ণ এলাকার প্রচুর মানুষ। এদিকে এলাকার কুইলপাড়া মাখনা প্রাথমিক বিদ্যালয়ে শিক্ষক অনিমেষ গুপ্তা বলেন, এই রাস্তাটির ওপর মাখনা-কুইলপাড়া উচ্চবিদ্যালয়, কুইলপাড়া প্রাথমিক বিদ্যালয়, গৌরীপুর প্রাথমিক বিদ্যালয়, ভাটোল প্রাথমিক বিদ্যালয় ও এএসকে রয়েছে। প্রচুর ছাত্রছাত্রী থেকে শুরু করে শিক্ষকরাও এই রাস্তা দিয়ে প্রতিদিন যাওয়া-আসা করেন। রাস্তাটির অবস্থা খুবই খারাপ। প্রতিদিনই ছাত্রছাত্রী থেকে শুরু করে শিক্ষক, সাধারণ মানুষ দুর্ঘটনার শিকার হন। অবিলম্বে রাস্তাটি মেরামত করা প্রয়োজন।

মাখনা-কুইলপাড়া কেএস হাইস্কুলের ভারপ্রাপ্ত শিক্ষক উত্তমকুমার সাহা বলেন, এই উচ্চবিদ্যালয়ের প্রায় ১২০০ ছাত্রছাত্রী এই রাস্তার ওপর নির্ভরশীল। বছরের অন্যান্য সময় ছাড়াও বিশেষ করে বর্ষাকালে ছাত্রছাত্রীরা এবং বিদ্যালয়ে শিক্ষকরা দুর্ভোগের মুখে পড়েন। রাস্তাটি মেরামত হলে দুই পক্ষেরই সুবিধা হবে। কুশিদা ও হরিশ্চন্দ্রপুরের অফিস, কাছারি, হাসপাতাল যাওয়ার একমাত্র মাধ্যম এই রাস্তা এই গ্রামগুলির মানুষের কাছে। রাস্তা খারাপ হওয়ার ফলে সমস্যায় পড়েছেন এলাকার মানুষ। তুলসীহাটা গ্রাম পঞ্চায়েতের প্রধান শকুন্তলা সিংহ জানান, পঞ্চায়েতের বাৎসরিক বাজেটে সম্পূর্ণ রাস্তা মেরামত করা সম্ভব নয়। তবে কিছু এলাকা সারিয়ে দেওয়ার চেষ্টা করা হবে। অন্যদিকে, এলাকার জেলাপরিষদ সদস্য সন্তোষ চৌধুরি বলেন, রাস্তটি বর্তমানে পিডব্লিউডির অধীনে। টেন্ডার প্রসেসিং-এর কাজ চলছে জেলাপরিষদস্তরে। খুব তাড়াতাড়ি রাস্তাটির কাজ শুরু হয়ে যাবে।