মোস্তাক মোরশেদ হোসেন, রাঙ্গালিবাজনা : আলিপুরদুয়ার জেলার মাদারিহাট-বীরপাড়া ব্লকের খয়েরবাড়ি গ্রাম পঞ্চায়েতের রায়পাড়া, পাগলিরপুল ও কাজিপাড়া য়াওয়ার রাস্তাটি বেহাল হয়ে পড়ায় ক্ষুব্ধ স্থানীয় বাসিন্দারা। ৩১সি জাতীয় সড়কের জনাই সেতু থেকে শুরু হয়ে ওই পাকা রাস্তাটি রায়পাড়া ও কাজিপাড়ার পাগলিরপুল হয়ে রাঙ্গালিবাজনা-ফালাকাটা সড়কে সংযুক্ত হয়েছে। কিন্তু রাস্তাটি বেহাল হয়ে পড়ায় ওই রাস্তা দিয়ে চলাচল করাই মুশকিল হয়ে পড়েছে বলে অভিযোগ স্থানীয়দের।

বছর পাঁচেক আগে রাস্তাটি পাকা করে আলিপুরদুয়ার জেলাপরিষদ। ইতিমধ্যেই রাস্তাটির বেশিরভাগ অংশ থেকে পিচের চাদর উঠে গিয়েছে। বিপজ্জনকভাবে বেরিয়ে রয়েছে কাটা পাথরগুলি। পাকা রাস্তার ওপর থেকে পিচের চাদর উঠে গিয়ে বড়ো বড়ো গর্ত তৈরি হয়েছে। কয়েকটি গর্ত অবশ্য খয়েবাড়ি গ্রাম পঞ্চায়েতের তরফে বালি-বজরি দিয়ে বন্ধ করার চেষ্টা করা হয়েছে। তবে এভাবে সমস্যার সমাধান সম্ভব নয় বলে মনে করছেন স্থানীয় বাসিন্দারা। স্থানীয় বাসিন্দারা জানান, কমবেশি দেড় কিমি দীর্ঘ ওই রাস্তাটি নির্মাণের সময়ই কাজের মান নিয়ে প্রশ্ন ওঠে। সেবার স্থানীয় বাসিন্দারা কাজের ঠিকাদার ও বাস্তুকারকে ঘিরে বিক্ষোভ দেখান। স্থানীয় বাসিন্দারা জানান, তাঁদের আশঙ্কা সত্যি হয়েছে। নয়া পাকা রাস্তা তৈরির কিছুদিন পর থেকেই পিচের চাদর উঠে য়েতে শুরু করে। বর্তমানে রাস্তাটি চলাচলের অনুপযুক্ত হয়ে পড়েছে।

তারা জানান, পাগলিরপুল এলাকায় রাস্তাটি সবচেয়ে বেহাল হয়ে পড়েছে। রাঙ্গালিবাজনা চৌপথি হয়ে ঘুরপথে যাতায়াত করার চেয়ে বীরপাড়া, শিশুবাড়ি যেতে অনেকেই ওই রাস্তাটিকে ব্যবহার করে থাকেন। তবে বর্তমানে বেহাল হওয়ার কারণে রাস্তাটিকে এড়িয়ে যাচ্ছেন অনেকেই। ওই এলাকার বাসিন্দা মহম্মদ আবু ফজল বলেন, কাটা পাথরগুলি বিপজ্জনকভাবে বেরিয়ে থাকায় যানবাহনের টায়ার নষ্ট হয়ে যাচ্ছে। হেঁটে চলাচল করতেও সমস্যা হচ্ছে। রাস্তাটি দ্রুত সংস্কার করা প্রয়োজন। আলিপুরদুয়ার জেলাপরিষদের স্থানীয় সদস্যা আশা নার্জিনারি বলেন, ধাপে ধাপে এলাকার রাস্তাঘাটগুলি পুনর্নির্মাণ ও সংস্কারের কাজ চলছে। ওই রাস্তাটি সংস্কারের ব্যাপারে শীঘ্রই জেলাপরিষদের সভাধিপতির সঙ্গে কথা বলব।