গণধর্ষণ মামলায় কৈলাশ বিজয়বর্গীয় সহ তিন বিজেপি নেতার আগাম জামিন মঞ্জুর

144

কলকাতা: কৈলাশ বিজয়বর্গীয় সহ তিন বিজেপি নেতার ২৫ অক্টোবর পর্যন্ত আগাম জামিন মঞ্জুর করল হাইকোর্ট। ইতিমধ্যে যদি তাদের গ্রেপ্তার করাও হয় ১০ হাজার টাকার দুটি ব্যাক্তিগত বণ্ডে জামিন দিতে হবে বলে নির্দেশ দিয়েছেন বিচারপতি হরিশ ট্যাণ্ডন ও বিচারপতি কৌশিক চন্দর ডিভিশন বেঞ্চ।

মামলার শুনানিতে রাজ্যের আইনজীবী শাশ্বতগোপাল মুখার্জি বলেন, ‘চারদিন হচ্ছে এদের বিরুদ্ধে তদন্ত শুরু হয়েছে। অভিযুক্তদের বিরুদ্ধে গণধর্ষণের অভিযোগ রয়েছে। তদন্ত সংস্থাকে কাজ করতে দেওয়া হোক। এবং জামাকাপড় ও অন্যান্য জিনিসের ফরেনসিক পরীক্ষা করা দরকার। শরৎবোস রোডের যে বাড়িতে এই ঘটনা ঘটেছিল সেখানকার দুজন কেয়ারটেকারের বক্তব্য গ্রহন করা হয়েছে। পাশাপাশি এই মামলা বর্তমানে সুপ্রিমকোর্টে বিচারাধীন এই পরিস্থিতিতে হাইকোর্ট মামলা গ্রহন করতে পারেনা।’

- Advertisement -

বিচারপতি হরিশ ট্যাণ্ডন ও বিচারপতি কৌশিক চন্দ প্রশ্ন তোলেন, হাইকোর্টের নির্দেশে এতদিন পর তিনজনের বিরুদ্ধে নতুন করে পুলিশ এফআইআর করেছে ঠিকই। কিন্তু এতদিন পর ঐ মহিলার মেডিক্যাল টেস্ট করলে কি কিছু তথ্য প্রমান পাওয়া সম্ভব?  এর আগে আলিপুর আদালত মহিলার অভিযোগ খারিজ করে দিয়েছিল। তারপর কলকাতা হাইকোর্টে আবেদন জানালে বিচারপতি বিবেক চৌধুরী এই ঘটনায় পুলিশকে ফের এফআইআর দায়ের করার নির্দেশ দিয়েছিলেন।তারপরই তিন বিজেপি নেতা সুপ্রিমকোর্টে মামলা করেছিলেন। সেই মামলা এখনও বিচারাধীন রয়েছে।

উল্লেখ্য ২০১৮ সালে রাজ্য বিজেপির কেন্দ্রীয় পর্যবেক্ষক কৈলাশ বিজয়বর্গীয়,  প্রদীপ জোশি এবং যিষ্ণু বসুর বিরুদ্ধে ভবানীপুর থানায় যৌন নির্যাতনের অভিযোগ জানান এক মহিলা। সেই ঘটনায় কলকাতা হাইকোর্টের নির্দেশে নতুন করে থানায় এফআইআর দায়ের হয়েছে গত ৮ অক্টোবর। তারপরই এফআইআর খারিজের দাবিতে এবং আগাম জামিনের আর্জি জানিয়ে কলকাতা হাইকোর্টে আবেদন জানিয়েছিলেন ৩ বিজেপি নেতা।