নবান্নের সামনে অনশনে বসার হুমকি বলবিন্দারের স্ত্রীর

0
489
- Advertisement -

কলকাতা: শনিবার সকাল ১০ টা পর্যন্ত সময় বেঁধে দিলেন। সেই মুহূর্ত পর্যন্তই অপেক্ষা করবেন। আর তার মধ্যে বলবিন্দারকে ছাড়া না হলে তিনি ছেলের হাত ধরে নবান্নের সামনে আমরণ অনশনে বসবেন বলে, এদিন স্পষ্ট জানিয়ে দিলেন বলবিন্দারের স্ত্রী। অপরদিকে পুলিশ হেপাজতে থাকা বলবিন্দার সিং ও এদিন পুলিশের কাছে জানিয়ে দিয়েছেন যে, আগামীকাল থেকে তিনি তাঁর স্ত্রী ও পুত্রের সঙ্গে না হলেও থানার লকারে অনশনে শামিল হবেন।

এদিন বলবিন্দারের স্ত্রী অভিযোগ তোলেন যে, বলবিন্দারের সঙ্গে পুলিশের কোন লেনাদেনা ছিল না। তিনি নিজের কাজ করছিলেন। শুধু তাই নয় কোন পুলিশকর্মীর ওপর তিনি আঘাত পর্যন্ত করেননি। তা সত্ত্বেও সর্বভারতীয় লাইসেন্স থাকা সত্ত্বেও তাকে কেন গ্রেপ্তার করা হল? শুধু তাই নয়, তার সঙ্গেও এ রাজ্যের এ রাজ্যের রাজ্যের পুলিশ যে ব্যবহার করেছে তাও আশানুরূপ নয়। এছাড়া দীর্ঘ এক সপ্তাহ ধরে তিনি বিভিন্ন জায়গায় তাঁর স্বামীর ন্যায় বিচার চেয়ে দৌড়াদৌড়ি করেছেন। এমনকি মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের সঙ্গে সাক্ষাৎ করার অনুমতি চেয়ে চিঠিও দিয়েছেন। আর সেই চিঠির এখনও পর্যন্ত কোনো উত্তর পাননি। আর তাই তিনি আগামীকাল সকাল ১০ টা পর্যন্ত অপেক্ষা করবেন। তারপরও কোনও সদুত্তর না পেলে ছেলের হাত ধরে সোজা নবান্নের সামনে অনশনে বসার সিদ্ধান্তের কথা জানিয়ে দিলেন।

এদিন বলবিন্দার সিং এর স্ত্রীর ওই সিদ্ধান্তের ব্যাপারে মন্তব্য করতে গিয়ে বিজেপি রাজ্য সভাপতি দিলীপ ঘোষ বলেন, ‘বিষয়টি এখন আর শুধুমাত্র রাজ্যের মধ্যে সীমাবদ্ধ নেই। আজ তা আন্তর্জাতিক স্তরে পৌঁছে গেছে। আর এর জেরে মুখ পুড়েছে রাজ্য সরকারের। মুখ্যমন্ত্রী মুখে বড় বড় কথা বললেও যেভাবে ধর্মীয় আবেগকে অপমান করেছেন তা কোনমতে গ্রহণযোগ্য নয়। তাঁর মতে সরকারের উচিত দোষ স্বীকার করে, ঘটনার গুরুত্ব বিচার করে অবিলম্বে বলবিন্দারকে মুক্তি দেওয়া।‘

উল্লেখ্য গত ৮ অক্টোবর ভারতীয় জনতা পার্টির যুব মোর্চার নবান্ন অভিযানের দিন হাওড়ার মন্দিরতলায় পুলিশের হাতে আগ্নেয়াস্ত্র সহ গ্রেপ্তার প্রাক্তন সেনাকর্মী তথা এক বিজেপি নেতার ব্যক্তিগত দেহরক্ষী বলবিন্দার সিং। শুধু তাই নয়, তাঁরা অভিযোগ করেন যে, সেদিন পুলিশ যেভাবে তাঁর পাগড়ি টেনে খুলে দেয় তা নিয়েও দেশজুড়ে বিতর্কের ঝড়ের সৃষ্টি হয়েছে। আর এই ঘটনা প্রকাশ্যে আসার পরপরই দিল্লির গুরুদ্বার থেকে শিখ সম্প্রদায়ের এক প্রতিনিধি দল এ রাজ্যে আসেন। তাঁরাও বলবিন্দারের মুক্তি ও পুলিশ অফিসারদের শাস্তির দাবিতে সরব হন।

- Advertisement -