বিএসএফের গুলিতে বাংলাদেশি পাচারকারীর মৃত্যু

895
প্রতীকী ছবি।

বৈষ্ণবনগর: শনিবার রাতে ভারত-বাংলাদেশ সীমান্তে বিএসএফের গুলিতে মৃত্যু হল এক বাংলাদেশি  পাচারকারীর। কাঁটাতারের বেড়ার ওপারে ভারতের সীমানা থেকে ওই পাচারকারীর মৃতদেহ উদ্ধার হয়েছে। দেহ ময়নাতদন্তের জন্য মালদা মেডিকেল কলেজ ও হাসপাতালে পাঠিয়েছে গোলাপগঞ্জ ফাঁড়ির পুলিশ। পুলিশ সূত্রে জানা গিয়েছে, মৃত যুবকের নাম বাদশা শেখ (২৫), বাবার নাম রফিক শেখ। তাঁর বাড়ি বাংলাদেশের চাঁপাই নবাবগঞ্জ জেলার শিবগঞ্জ থানার তেলকুপি গ্রামে।

বিএসএফ সূত্রে জানা গিয়েছে, শনিবার রাতে সীমান্তে পাহারা দেওয়ার সময় গোপালনগর বিওপির ২৪ নম্বর ব্যাটালিয়নের জওয়ানরা দেখতে পান, সীমান্তের কাঁটাতারের বেড়া এলাকায় এপার থেকে বেশ কয়েকজন পাচারকারী কাফ সিরাপ ভর্তি পুঁটলি বাংলাদেশ ভূখন্ডে ছুঁড়ে দিচ্ছে। সীমান্তরক্ষী বাহিনীর জওয়ানরা বিষয়টি দেখে সেদিকে এগিয়ে যেতেই পাচারকারীরা পুঁটুলিগুলি তাড়াতাড়ি ছুঁড়ে দিয়ে পালিয়ে যায়। কিন্তু একটি পুঁটুলি কাঁটাতারের বেড়ায় আটকে যায়। ভারতীয় পাচারকারীদের ছুঁড়ে দেওয়া কাফ সিরাপের পুঁটুলি নিয়ে পালানোর চেষ্টা করে বাংলাদেশি পাচারকারীরা।

- Advertisement -

কাঁটাতারে আটকে থাকা পুঁটুলি উদ্ধার করতে না পেরে কিছু বাংলাদেশি দুষ্কৃতী বিএসএফকে লক্ষ্য করে ইট-পাথর এমনকি ধারাল অস্ত্রও ছুঁড়তে শুরু করে বলে অভিযোগ। দুষ্কৃতীদের ছুঁড়ে মারা ধারাল অস্ত্রের আঘাতে জখম হন বিএসএফ জওয়ান। সেই সময় আত্মরক্ষার জন্য বিএসএফ জওয়ানরা এক রাউন্ড গুলি চালান। তারপরেই সীমান্ত এলাকা থেকে পালিয়ে যায় বাংলাদেশি পাচারকারীরা। পরে জিরো ল্যান্ডে তল্লাশি চালাতে গিয়ে এক যুবকের দেহ পড়ে থাকতে দেখেন জওয়ানরা। তার কানের পাশে একটি গুলি লাগার চিহ্ন রয়েছে। ওই এলাকায় তল্লাশি চালিয়ে তিনটি পুঁটুলি ভর্তি কাফ সিরাপ উদ্ধার করেছেন বিএসএফ জওয়ানরা।

বিএসএফের সাউথ বেঙ্গল ফ্রন্টিয়ারের ডিআইজি এসএস গুলেরিয়া বলেন, গোপালনগর বিওপির ২৪ নম্বর ব্যাটালিয়নের জওয়ানরা রাতে পাহারা দেওয়ার সময় দেখতে পান, এপারের পাচারকারীদের ছুঁড়ে দেওয়া কাফ সিরাপ ভর্তি পুঁটুলি বাংলাদেশের কয়েকজন দুষ্কৃতী সীমান্ত এলাকা থেকে সংগ্রহ করছে। জওয়ানরা ওই এলাকায় যেতেই বাংলাদেশি দুষ্কৃতীরা ইট-পাথর ও ধারাল অস্ত্র ছুড়ে বিএসএফ জওনায়দের সরিয়ে দেওয়ার চেষ্টা করে। ধারাল অস্ত্রের আঘাতে একজন বিএসএফ জওয়ান জখম হয়েছেন। সেই সময় আত্মরক্ষার জন্য এক রাউন্ড গুলি ছোঁড়েন বিএসএফ জওয়ানরা। পরে কাঁটাতারের বেড়ার ওপারে ভারতীয় সীমানায় এক বাংলাদেশি যুবকের দেহ দেখতে পান জওয়ানরা। দেহ উদ্ধারের জন্য গোলাপগঞ্জ ফাঁড়ির পুলিশকে ডাকা হয়। ওই এলাকায় তিনটি পুঁটুলি ভর্তি ৭৫ বোতল কাফ সিরাপ উদ্ধার হয়েছে। গোলাপগঞ্জ ফাঁড়ির পুলিশ মৃতদেহ উদ্ধার করে ময়নাতদন্তের জন্য পাঠিয়েছে।

গোলাপগঞ্জ ফাঁড়ির ওসি রামচন্দ্র সাহা বলেন, কাঁটাতারের বেড়ার ওপারে ভারতের সীমানায় বাংলাদেশের এক যুবকের মৃতদেহ উদ্ধার করা হয়েছে। ময়নাতদন্তের জন্য দেহ মালদা মেডিকেল কলেজ ও হাসপাতালে পাঠানো হয়েছে।