গ্ৰাহকের মারে জখম ব্যাংক কর্মী, বন্ধ পরিষেবা

267

হ্যামিল্টনগঞ্জ: স্টেট ব্যাংকের হ্যামিল্টনগঞ্জ শাখার এক কর্মীকে মেরে মাথা ফাটিয়ে দেওয়ার অভিযোগ উঠেছে ওই যুবক ও তরুনীর বিরুদ্ধে। অপর দিকে ওই যুবকেও মারধোরের অভিযোগ উঠেছে ব্যাংকের ওই কর্মীর বিরুদ্ধে। ঘটনার জেরে শনিবার ব্যাংক কর্তৃপক্ষ ব্যাংক পরিষেবা বন্ধ করে দেয়। নিরাপত্তার কারণে পরিষেবা বন্ধ করা হয়েছে বলে দাবি ব্যাংক কর্তৃপক্ষের। ঘটনার পর দুই পক্ষের তরফেই কালচিনি থানায় অভিযোগ দায়ের করা হয়েছে। পুলিশ ঘটনার তদন্ত শুরু করেছে।

স্থানীয় ও পুলিশ সূত্রে খবর, ব্যাংকের ওই অস্থায়ী কর্মী একজন গ্ৰাহককে এটিএমের কাজে সহায়তার জন্য ব্যাংকের পাশে থাকা এটিএম-এ গিয়েছিলেন। ফেরার সময় তিনি দেখেন এক যুবক ও তার সঙ্গে থাকা এক তরুনী একটি পথ কুকুরকে ঢিল ছুড়ে মারছেন। ওই ব্যাংক কর্মী ঘটনার প্রতিবাদ করলে যুবক ও তরুনীর তাকে মারতে শুরু বলে অভিযোগ। ব্যাংক কর্মীর‌ অভিযোগ তাকে ইট দিয়ে মেরে মাথা ফাঁটিয়ে দেন যুবক ও তরুনী। অন্যদিকে ওই যুবক ও তরুনী পুলিশকে অভিযোগ জানিয়েছেন, তাঁরা ব্যাংকে নতুন অ্যাকাউন্ট খুলতে এসেছিলেন। তাদের স্কুটারে সামান্য আঘাত পায় পথ কুকুরটি। সে সময় ব্যাংকের ওই কর্মী এসে তাদের সঙ্গে বচসা শুরু করে দেন। পরে যুবককে মারধর করার অভিযোগ জানান ব্যাংক কর্মীর বিরুদ্ধে।

- Advertisement -

অন্যদিকে, জখম কর্মীকে উদ্ধার করে ব্যাংকের তরফে লতাবাড়ি গ্ৰামীণ হাসপাতালে নিয়ে যাওয়া হয়‌। ওই কর্মীর মাথায় চারটি সেলাই পরে বলে জানা গিয়েছে। ব্যাংক কর্তৃপক্ষ জানিয়েছে কালচিনি থানায় ওই যুবক ও তরুনীর বিরুদ্ধে অভিযোগ জানান হয়েছে। সিসি টিভি ক্যামেরার ফুটেজ দেখে পুলিশি তদন্তের দাবি করেছেন ব্যাংকের কর্মীরা। কালচিনি থানার ভারপ্রাপ্ত আধিকারিক প্রদীপ মন্ডল জানিয়েছেন, ঘটনার তদন্ত চলছে। অন্যদিকে ব্যাংকের ওই শাখায় নিরাপত্তা ব্যবস্থা জোরদার করার দাবি তুলেছেন ব্যাংক কর্মীদের একাংশ।