বিদ্যুৎহীন সুইচ বোর্ড বানিয়ে তাক লাগালেন বাপ্পা

684

রাহুল দেব, রায়গঞ্জ: বিদ্যুৎহীন সুইচ বোর্ড বানালেন রায়গঞ্জ বিশ্ববিদ্যালয়ের পদার্থবিদ্যা বিভাগের অশিক্ষক কর্মচারী বাপ্পা রায়। তাঁর বানানো সুইচ বোর্ডে কোনও বিদ্যুৎ থাকবে না। ফলে ইলেকট্রিক শক খাওয়ার কোনও সম্ভাবনা নেই বলে জানিয়েছেন বাপ্পাবাবু। ডিভাইস বানাতে তাঁকে সাহায্য করেছেন বিশ্ববিদ্যালয়ের পদার্থবিদ্যা বিভাগের পড়ুয়া শুভময় বসাক, সায়ন্তন রায় ও প্রিয়া সরকার। এই উদ্যোগকে স্বাগত জানিয়েছেন রায়গঞ্জ বিশ্ববিদ্যালয়ের রেজিস্ট্রার।

বাপ্পা জানান, বর্ষাকালে স্যাঁতসেঁতে পরিবেশে বা স্যাঁতস্যাঁতে আবহাওয়ায় ইলেকট্রিক সুইচ বোর্ডে হাত দিলে অনেকেই শক খান। আবার কখনও সময় ভেজা হাতে সুইচ টিপলে সেখানেও শক খাওয়ার সম্ভাবনা থাকে। এটা রুখতে নতুন ডিভাইস বানিয়েছেন তিনি। এই ডিভাইস ব্যবহারে সুইচ বোর্ডে কোনও বিদ্যুৎ প্রবাহিত হবে না। অথচ লাইট, ফ্যান সবকিছু স্বাভাবিকভাবেই জ্বলবে। ডিভাইস বানাতে মসফেট, ট্রানজিস্টর সহ অন্যান্য বৈদ্যুতিক সরঞ্জাম ব্যবহৃত হয়েছে বলে জানিয়েছেন বাপ্পাবাবু।

- Advertisement -

এর পাশাপাশি বিদ্যুৎ সংরক্ষণের জন্য সোলার সেল দিয়ে আরেকটি অভিনব ডিভাইসও বানিয়েছেন তিনি। সেই ডিভাইস ব্যবহারে বিদ্যুৎ খরচ অনেকটাই কমানো যাবে বলে জানিয়েছেন বাপ্পাবাবু। তিনি এর আগে বৈদ্যুতিক জুতো, অটো-স্যানিটাইজার মেশিন সহ বেশ কিছু ইলেকট্রনিক ডিভাইস বানিয়েছেন।

বাপ্পাবাবুর উদ্যোগকে স্বাগত জানিয়ে রায়গঞ্জ বিশ্ববিদ্যালয়ের রেজিস্ট্রার ড. দুর্লভ সরকার বলেন, ‘বাপ্পাবাবু বিভিন্ন সময় বিভিন্ন ধরনের ডিভাইস বানিয়েছেন। তাঁর বানানো ডিভাইস ব্যবহারে বিদ্যুৎ খরচ কমবে। বিদ্যুৎ অনেকটাই সংরক্ষণ করা যাবে।’