ল্যাবের মধ্যে রয়েছে বাদুড়, উহানে ভাইরাল ভিডিও নিয়ে ফের বিতর্ক

227
সংগৃহীত

বেজিং: একবিংশ শতাব্দীর এখনও পর্যন্ত সবচেয়ে ভয়ঙ্কর আতঙ্ক  করোনা ভাইরাস। কিন্তু এই ভাইরাসের উৎপত্তি নিয়ে রয়েছে হাজারও রহস্য। চিনের বিরুদ্ধে আঙ্গুল তুলেছে গোটা বিশ্ব। তবে সেই অভিযোগ উড়িয়ে দিয়েছে খোদ বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থাও। তবে এবার ভয়ানক এক ফুটেজ সামনে এল।  উহান ল্যাবের খাঁচার মধ্যে রয়েছে কিনা বাদুড়। যা নিয়ে রীতিমত তোলপাড় শুরু হয়ে গিয়েছে গোটা বিশ্বে।

চায়না একাডেমি অফ সায়েন্স ২০১৭ সালের মে মাসে একটি ভিডিও প্রকাশ করে। যেখানে দেখা যাচ্ছে, বাদুড়গুলোকে খাঁচার মধ্যে রাখা হচ্ছে। উহান ল্যাবে নতুন বায়োসেফটি লেভেল ৪ অনুযায়ী সুরক্ষা প্রবর্তনের পরে এই ভিডিওটি প্রকাশ করা হয়েছিল। যেকোনো মুহূর্তে দুর্ঘটনা ঘটতে পারে বলে সুরক্ষার মানদন্ড বলা হয়েছিল। ল্যাবটি নির্মাণের বিষয়ে ফরাসী সরকারের সঙ্গে প্রচুর বিরোধের কথাও বলা হয়েছিল ওই ভিডিওতে ।

- Advertisement -

ভিডিওতে আরও দেখা গেছে, বিজ্ঞানীরা বাদুড়গুলোকে নানা কীটপতঙ্গ খাওয়াচ্ছে। ১০ মিনিটের এই ভিডিওটি পুরোপুরি উহান ল্যাব নির্মাণের বিষয়ে করা হয়েছে। এতে অনেক বিজ্ঞানীর সাক্ষাৎকারও প্রদর্শিত হয়েছে। এর আগে, ডাব্লুএইচওর পক্ষ থেকে করোনার উত্স সম্পর্কে তদন্ত প্রতিবেদনে বলা হয়নি যে বাদুড়কে উহান ল্যাবে রাখা হয়েছিল। তদন্ত রিপোর্টে বলা হয়েছিল যে, প্রাণীদের উহান ল্যাবে রাখা হয়েছিল। এমনকি বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থার  বিশেষজ্ঞ পিটার দ্যাজাক বলেছিলেন যে, উহান ল্যাবটিতে বাদুড় রাখার দাবিটি একটি ষড়যন্ত্র।

এই ভিডিয়ো সামনে আসার পরই করোনার উৎস নিয়ে তদন্ত করতে যাওয়া হু-র গবেষকদের বিবৃতি নিয়ে নতুন করে প্রশ্ন উঠতে শুরু করেছে। উহানের ওই গবেষণাগারে যে তদন্তকারী দল পাঠিয়েছিল হু, তাতে শামিল ছিলেন প্রাণীবিদ পিটার দ্যাজাকও।