মরুদেশেই বিশ্বকাপ, জানিয়ে দিলেন সৌরভরা

নিজস্ব প্রতিনিধি, কলকাতা : করোনা সংক্রমণ কমেছে। কিন্তু পুরোপুরি নিয়ন্ত্রণে আসেনি। সঙ্গে করোনার তৃতীয় ঢেউয়ে সম্ভাবনাও রয়েছে। নরেন্দ্র মোদি সরকারের সঙ্গে কয়েক দফার আলোচনার পরও অক্টোবর-নভেম্বরে দেশের মাটিতে টি২০ বিশ্বকাপ আয়োজনে কর ছাড়ের সবুজ সংকেত পায়নি ভারতীয় ক্রিকেট কন্ট্রোল বোর্ড।

নিট ফল, আজ প্রত্যাশিতভাবেই সৌরভ গঙ্গোপাধ্যায়, জয় শা-রা অক্টোবরে ভারতে কুড়ির বিশ্বকাপ আয়োজনে তাঁদের সমস্যার কথা জানিয়ে দিলেন আইসিসিকে। সঙ্গে বিকল্প হিসেবে সংযুক্ত আরব আমিরশাহিতে বিশ্বকাপ আয়োজনের কথাও বিসিসিআইয়ে তরফে জানানো হয়েছে আইসিসিকে। ১ জুন আইসিসির বোর্ড মিটিংয়ে বিশ্বকাপ আয়োজনের জন্য সময় চেয়েছিল বিসিসিআই। ক্রিকেটের নিয়ামক সংস্থার তরফে ২৮ জুন পর‌্যন্ত সময় দেওয়া হয়েছিল বিসিসিআইকে। শেষ দিনে জল্পনাকে বাস্তব করে বিসিসিআই তাদের অবস্থান স্পষ্ট করল। বোর্ডের তরফে সভাপতি সৌরভ আজ বলেন, পরিস্থিতির কথা মাথায় রেখে বিশ্বকাপ ভারত থেকে সংযুক্ত আরব আমিরশাহিতে সরানোর সিদ্ধান্ত হয়েছে। আমরা আইসিসিকে জানিয়ে দিয়েছি। বিস্তারিত ঘোষণা পরে হবে।

- Advertisement -

মরুদেশে বিশ্বকাপ হলেও (শুরু সম্ভবত ১৭ অক্টোবর, ফাইনাল ১৪ নভেম্বর) আয়োজক হিসেবে দায়িত্বে থাকবে বিসিসিআই। কিন্তু কীভাবে? আজ দুপুরে সভাপতি সৌরভ, সচিব জয়, কোশাধ্যক্ষ অরুণ সিং ধুমল ও সহ সভাপতি রাজীব শুক্লা টেলি কনফারেন্সের মাধ্যমে এব্যাপারে আলোচনাও করেছেন। সন্ধ্যার দিকে এব্যাপারে রাজীব বলেন, আজ আইসিসিকে জানানোর শেষ দিন ছিল। দুপুরে নিজেদের মধ্যে কনফারেন্স কলে কথা বলার পর আমরা আইসিসিকে ইউএইতে বিশ্বকাপের কথা জানিয়েছি। দেশে করোনা সংক্রমণ কমলেও আগামী তিন-চার মাসে ছবিটা কোন পথে যাবে, জানা নেই আমাদের। তাই কোনও ঝঁকি না নিয়ে সিদ্ধান্ত ঘোষণা করলাম আমরা।

এদিকে, মরুদেশে বিশ্বকাপ আয়োজনের বাজনা বেজে যাওয়ার পরও বোর্ডের একটা অংশ থেকে এখনও প্রবলভাবে চেষ্টা চলছে, কুড়ির বিশ্বকাপের জোড়া সেমিফাইনাল ও ফাইনাল ভারতে আয়োজন করার। আহমেদাবাদের মোতেরার নরেন্দ্র মোদি স্টেডিয়ামে এই ম্যাচ করতে চান বোর্ডের শীর্ষ কর্তারা। যদিও এব্যাপারে বিসিসিআইয়ে তরফে সরকারিভাবে কোনও মন্তব্য পাওয়া যায়নি।