কোচের দৌড়ে কুম্বলের সঙ্গে লক্ষ্মণও

মুম্বই : বিসিসিআই রাজি নয়। তিনিও আর থাকতে চান না।

বিরাট কোহলি যেমন টি২০ বিশ্বকাপের পর কুড়ির ক্রিকেটের নেতৃত্ব থেকে সরে দাঁড়ানোর কথা ঘোষণা করে দিয়েছেন। টিম ইন্ডিয়ার হেড স্যর রবি শাস্ত্রী ঠিক সেই পথে হাঁটেননি। কিন্তু তিনি বিসিসিআই শীর্ষ কর্তাদের পাশে তাঁর ঘনিষ্ঠমহলে ইঙ্গিত দিয়েছেন, মরুদেশে বিশ্বকাপের পর তিনি ভারতীয় ক্রিকেট সংসারে থাকছেন না।

- Advertisement -

শাস্ত্রীর উত্তরসূরীর দৌড়ে রয়েছেন অনিল কুম্বলে, ভিভিএস লক্ষ্মণের মতো কিংবদন্তিরা। প্রাক্তন শ্রীলঙ্কা অধিনায়ক তথা মুম্বই ইন্ডিয়ান্সের কোচ মাহেলা জয়বর্ধনের সঙ্গেও কথা বলেছেন বোর্ডের শীর্ষ কর্তারা। নাম ভাসছে মহেন্দ্র সিং ধোনি ও রাহুল দ্রাবিড়েরও। যদিও এখনও চূড়ান্ত কিছুই হয়নি। জানা গিয়েছে, মাহেলা নিজের দেশের জাতীয় দলের কোচ হওয়ার ব্যাপারে বেশি আগ্রহী।

বড় অঘটন না হলে জয়বর্ধনের টিম ইন্ডিয়ার কোচ হওয়ার সম্ভাবনা কম। বোর্ড কর্তাদের না বলে দিয়েছেন মাহেলা। বিসিসিআইয়ের এক কর্তা আজ সন্ধ্যায় উত্তরবঙ্গ সংবাদ-কে টিম ইন্ডিয়ার কোচ কী খোঁজ নিয়ে বলেন, মরুদেশে টি২০ বিশ্বকাপ শেষ হওয়ার আগেই টিম ইন্ডিয়ার নতুন কোচের নাম ঘোষণা হয়ে যাওয়ার কথা। কিছু খটকার দ্রুত সমাধান করতে পারলেই কাজটা সহজ হয়ে যাবে।

ভারতীয় দলের কোচের দৌড়ে সবার আগে কে? সূত্রের খবর, প্রাক্তন ভারত অধিনায়ক কুম্বলের সঙ্গে সৌরভ গঙ্গোপাধ্যায় ও জয় শা-র আলোচনা অনেকটা এগিয়ে গিয়েছে। যদিও কুম্বলে কিছু শর্ত দিয়েছেন বলে খবর। টিম ইন্ডিয়ার কোচ হিসেবে অতীতের তিক্ত অভিজ্ঞতার পুনরাবৃত্তি চান না তিনি। দায়িত্ব পাওয়ার পরও অধিনায়ক কোহলির অপছন্দের কারণে সরতে হয়েছিল তাঁকে।

ভিভিএস লক্ষ্মণের কাছেও ইতিমধ্যেই বোর্ডের তরফে জাতীয় দলের কোচ হওয়ার জন্য প্রস্তাব গিয়েছে। ধারাভাষ্য থেকে শুরু করে সিএবির ভিশন প্রকল্পের সঙ্গে জড়িয়ে তিনি। টিম ইন্ডিয়ার হেডস্যর হলে সব চুক্তি ছাড়তে হবে। পাশাপাশি সারা বছর দলের সঙ্গে ট্র‌্যাভেল করতে হবে। এব্যাপারে এখনও সিদ্ধান্ত নেননি বলেই সময় চেয়েছেন তিনি।