টিকা নিলেও সতর্ক থাকুন, মত বিশেষজ্ঞদের

82

ন্যাশভিল (আমেরিকা) : করোনা সংক্রমণ ঠেকাতে ৫০টির বেশি দেশে টিকাকরণ শুরু হয়েছে। যদিও আমেরিকা, ব্রিটেন সহ ইউরোপের বেশ কয়েকটি দেশে সংক্রমণের তীব্রতা কমার লক্ষণ দেখা যাচ্ছে না। বিশ্বে সংক্রামিতের সংখ্যা সাড়ে ১০ কোটি ছুঁইছুঁই। মঙ্গলবার আমেরিকায় দু-লক্ষের বেশি মানুষের টেস্ট রিপোর্ট পজিটিভ এসেছে। টিকাকরণ শুরু হওয়ার পরেও কেন সংক্রমণের তীব্রতা কমছে না তা নিয়ে গবেষণা শুরু হয়েছে।

আমেরিকার জন হপকিন্স বিশ্ববিদ্যালয়ের ফার্মাকোলজি অ্যান্ড মলিকিউলার সায়েন্স বিভাগের অধ্যাপক নামান্দাজ বাম্পাসের মতে, নানাভাবে সংক্রমণ ছড়াচ্ছে। টিকাকরণ নিয়ে কিছু ভুল ধারণার ফলেও পরিস্থিতি জটিল হচ্ছে। অনেকের ধারণা টিকা দেওয়া শুরু হলেই ভাইরাসকে নিয়ন্ত্রণ করা সম্ভব হবে। যদিও বিষয়টা আদৌ সেইরকম নয়। টিকা অবশ্যই সংক্রমণ ঠেকানোর সবচেয়ে কার্যকর হাতিয়ার। বহু রোগের ক্ষেত্রে এটি গেম চেঞ্জারের ভূমিকা নিয়েছে। তবে সংক্রমণ ঠেকাতে টিকার কার্যকারিতা সম্পর্কে স্বচ্ছ ধারণার প্রয়োজন। নামান্দাজের বক্তব্য, টিকা মানবদেহে ভাইরাসের বিরুদ্ধে অ্যান্টিবডি তৈরি করে। কিন্তু এমন অনেকে আছেন যাঁরা টিকা নেওয়ার আগেই সংক্রামিত হয়েছেন। টিকা নেওয়ার পর তাঁদের মাধ্যমে সংক্রমণ ছড়ানোর সম্ভাবনা উড়িয়ে দেওয়া যায় না। একই কথা জানান টেনেসির ভ্যান্ডারবিল্ট বিশ্ববিদ্যালয়ের অধ্যাপক উইলিয়াম সিনেফার। তিনি বলেন, টিকা রোগ প্রতিরোধ করতে পারে। কিন্তু এর প্রয়োগ সংক্রমণ ঠেকাতে কতটা কার্যকর তা নিয়ে ধোঁয়াশা রয়েছে। বিশেষজ্ঞরা জানিয়েছেন, এখনও পর্যন্ত যত টিকা বাজারে এসেছে তার সবকটি দু-ডোজের। প্রথম ডোজ নেওয়ার নির্দিষ্ট সময় পর দ্বিতীয় ডোজ নিতে হয়। তারও বেশ কয়েকদিন বাদে দেহে অ্যান্টিবডি তৈরি হতে শুরু করে।

- Advertisement -