হলুদ ঝড়ে বিধ্বস্ত লাল চিন, চিন্তায় প্রশাসন

199

বেজিং: করোনার সঙ্গে লড়াইয়ে এখনও বিরাম পড়েনি, তার মাঝেই লাল চিন হলুদ ঝড়ে বিধ্বস্ত! সোমবার সকাল থেকে বেজিংয়ে যেদিকেই চোখ যাবে শুধু হলুদ আর হলুদ। তবে হলুদ ফুল নয়, হলুদ ঝড়, বালির ঝড়। আর সেই ঝড়ের দাপটে একপ্রকার বিপর্যস্ত চিনের জনজীবন।

অন্যদিনের মতই সকালে রাস্তায় বেরিয়েছেন মানুষ। অফিস যাওয়ার তাড়া, দোকান খোলার তাড়া, দৈনন্দিন জীবনে হাজারো কাজ নিয়ে রাস্তায় বেরোনো মানুষ অবাক হয়ে দেখছেন চারপাশে। এ কোন সকাল? অন্ধকার নয়, হলুদ। আসলে গোবি মরুভূমি ও চিনের উত্তর-পশ্চিমাঞ্চলে সৃষ্ট ভারি ধুলোবালির ঝড় বেজিংয়ে এই পরিস্থিতির তৈরি হয়।

- Advertisement -

গত এক দশকে এটিই সবচেয়ে বড় ধূলো ঝড় বলে চিনা আবহাওয়া ব্যুরো জানিয়েছে। দ্য চিনা মেটেরোরজিক্যাল অ্যাডমিনিস্ট্রেশন সোমবার সকালে হলুদ সতর্কতা জারি করে। সংস্থাটি জানায়, ইনার মঙ্গোলিয়া থেকে এই ঝড় ছড়িয়ে পড়েছে গানসু, সানহাই ও হেবেই প্রদেশে।

চিনা বিদেশ মন্ত্রণালয় জানায়, মঙ্গোলিয়ায় এই ঝড়ে প্রায় তিনশো জন নিখোঁজ। বাধাগ্রস্ত হয়েছে বিমান চলাচলও। চিনের ইনার মঙ্গোলিয়ার রাজধানী হোহতে ফ্লাইট জরুরি অবতরণ করেছে। আরও ঝড়ের আশঙ্কায় স্থানীয় সময় দুপুরে বেজিং ক্যাপিটাল ইন্টারন্যাশনাল এয়ারপোর্ট এবং বেজিং ডাশিং ইন্টারন্যাশনাল এয়ারপোর্টে সব ধরণের ফ্লাইট বাতিল করা হয়েছে। মানুষের জীবন নিয়ে ঝুঁকি নিতে নারাজ প্রশাসন। যত বেশি সম্ভব বাড়িতেই থাকার আবেদন জানানো হয়েছে।