কলকাতা, ১৫ জুনঃ এসমা জারি করতে চায় না রাজ্য সরকার। স্বাস্থ্য পরিসেবায় অচলাবস্থার শান্তিপূর্ণ সমাধান চান মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। শনিবার নবান্নে সাংবাদিক বৈঠকে মুখ্যমন্ত্রী বলেন, ‘এসমা জারি করতে চাই না। কিন্তু ডাক্তাররা তাড়াতাড়ি কাজে যোগ দিন। আমাদের হাতে আইন আছে। কিন্তু প্রয়োগ করতে চাই না। কারও কেরিয়ার নষ্ট করতে চাই না।’

প্রসঙ্গত, এসমা আইনে জরুরি পরিসেবা জারি রাখতে চিকিত্সকদের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নিতে পারে সরকার। বৃহস্পতিবার এসএসকেএম হাসপাতালে গিয়ে এসমা লাগুর হুঁশিয়ারি দিয়ে এসেছিলেন মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। কিন্তু সেই হুঁশিয়ারি উড়িয়ে আন্দোলন চালিয়ে যান জুনিয়র ডাক্তাররা।

যাঁরা কাজে যোগ দিতে চান, তাঁদের নিরাপত্তা দেওয়ার আশ্বাসও দিয়েছেন মুখ্যমন্ত্রী। তাঁর বার্তা, ‘কেন কাজ বন্ধ করে রাখা হয়েছে? যাঁরা কাজ করতে ইচ্ছুক, তাঁরা কাজে যোগ দিন। তাঁদের সবরকম সাহায্য করবে প্রশাসন।’ একইসঙ্গে মুখ্যমন্ত্রী বলেন, ‘আমি মনে করি, শান্তিপূর্ণ সমাধান হওয়া উচিত। কথা বলার দরজা সবসময় খোলা আছে।’ বলেন, ‘গরিব মানুষদের কথা ভেবে কাজে যোগ দিন। সব দাবি নিয়ে আলোচনা করব। সব দেখা হবে, কিন্তু আগে চিকিৎসা শুরু করুন।’

সরকার যে দোষীদের শাস্তি দিয়েই ছাড়বে সেই প্রসঙ্গও তুলে ধরেন মুখ্যমন্ত্রী। জানান, পাঁচজনকে গ্রেফতার করা হয়েছে। জামিন অযোগ্য করছে ধারায় মামলা রুজু করা হয়েছে।