ভানু, রবিশংকরের স্মরণ কলকাতা চলচ্চিত্র উৎসবে

321

প্রতি বছরের মতো এবারও নভেম্বরে অনুষ্ঠিত হবে কলকাতা আন্তর্জাতিক চলচ্চিত্র উৎসব। করোনা পরিস্থিতির জন্য এবারের চলচ্চিত্র উৎসবের আড়ম্বর একটু নয়, অনেকটাই কম। তবে দুই কিংবদন্তি বাঙালির জন্মশতবর্ষ এ বছর। তাঁদের শ্রদ্ধা জানানো হবে সিনেমার মাধ্যমে। দেখানো হবে ভানু বন্দ্যোপাধ্যায় এবং পণ্ডিত রবিশংকরের চলচ্চিত্র। চলতি বছরের কলকাতা আন্তর্জাতিক চলচ্চিত্র উৎসব শুরু হওয়ার কথা ৮ নভেম্বর থেকে। তেমনটা হলে উৎসব শেষ হবে ১৫ নভেম্বর। শোনা গিয়েছে, এবার অনেক কম সিনেমা বাছা হয়েছে প্রদর্শনের জন্য। গত বছর যেখানে প্রায় ২১৪টি সিনেমা দেখানো হয়েছিল, সেখানে চলতি বছরে নাকি মাত্র ৮০ থেকে ৯০টি সিনেমাকে বেছে নেওয়া হবে। এর মধ্যে ভানু বন্দ্যোপাধ্যায়ের সেই সিনেমা বেছে নেওয়া হবে, যাতে তিনি গুরুত্বপূর্ণ চরিত্রে অভিনয় করেছেন। পণ্ডিত রবিশংকর সুরকার হিসেবে যে সিনেমাগুলিতে কাজ করেছেন। তা থেকে ছবি বেছে নেওয়া হবে প্রদর্শনীর জন্য।

প্রাথমিকভাবে অনলাইনে এবারের ২৬তম কলকাতা আন্তর্জাতিক চলচ্চিত্র উৎসবের আয়োজন করার কথা ভাবা হয়েছিল। এবারে শোনা গিয়েছে, আড়ম্বর কম হলেও কলকাতার নন্দন প্রাঙ্গণে বেশিরভাগ সিনেমা দেখানো হবে। এছাড়াও রবীন্দ্র ওকাকুরা ভবন এবং টালিগঞ্জের সরকারি অডিটোরিয়ামে সিনেমা দেখানোর কথা ভাবা হচ্ছে। সুরক্ষাবিধি মেনেই কীভাবে এবারের চলচ্চিত্র উৎসবকে আকর্ষণীয় করা যায়, তা নিয়ে ভাবনাচিন্তা করছেন উদ্যোক্তারা। এ বছর ইতালির পরিচালক ফেদরিকো ফেলিনিরও জন্মশতবর্ষ। তাঁকেও শ্রদ্ধা জানানো হতে পারে। শোনা গিয়েছে, আগামী বছরের চলচ্চিত্র উৎসব নিয়ে বিশেষ পরিকল্পনা রয়েছে উদ্যোক্তাদের। কারণ আগামী বছর সত্যজিৎ রায়ের জন্মশতবর্ষ। গতবছর উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন শাহরুখ খান, রাখী গুলজার, মহেশ ভাট প্রমুখ। শারীরিক অসুস্থতার কারণে আসতে পারেননি অমিতাভ বচ্চন। এ বছর কারা উপস্থিত থাকবেন, এখনও জানা যায়নি।

- Advertisement -