কেশপুর, ১২ মেঃ ষষ্ঠ দফার নির্বাচনে সকাল থেকেই উত্তপ্ত পশ্চিম মেদিনীপুরের কেশপুর। বাম আমলে সকলের নজর থাকত এই বুথে। এখনও যে সেই অবস্থার পরিবর্তন হয়নি, তা এদিন বোঝা গেল। বিজেপি এজেন্টকে বসতে দেওয়া হয়নি, খবর পাওয়ার পর এদিন সকালে কেশপুরের একটি কেন্দ্রে যান ঘাটালের বিজেপি প্রার্থী ভারতী ঘোষ। কিন্তু যাওয়া মাত্রই ভারতীকে ঘিরে ধরেন এলাকার মহিলারা। বিজেপি প্রার্থীর এজেন্টকে বসতে দেওয়া হবে না বলে জানিয়ে দেন ওই মহিলারা। পালটা ভারতী বলতে যেতেই শুরু হয় বচসা, ধাক্কাধাক্কি। ধাক্কায় পায়ের নখ উপড়ে যায় ভারতীর। এরপর কেশপুরের দোগাছিয়ায় একটি বুথে ছাপ্পা ভোটের খবর পেয়ে সেখানে যেতে চান ভারতী। কিন্তু তাঁর গাড়ি লক্ষ্য করে ইঁটবৃষ্টি শুুরু হয়ে যায়। ভারতীর গাড়ি সহ একাধিক গাড়ির কাচ ভেঙে যায়। হাইওয়েতে দাঁড়িয়ে থাকতে হয় ভারতীকে। শেষ পর্যন্ত ভারতীর নিরাপত্তার দায়িত্বে থাকা জওয়ানরা শূন্যে গুলি চালিয়ে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনে। 

অন্যদিকে, বুথে ঢুকে ভিডিয়োগ্রাফি করার অভিযোগও উঠেছে ভারতী ঘোষের বিরুদ্ধে। কেশপুরের পিকুরদায় একটি বুথে ভারতী এই কাজ করেছেন বলে অভিযোগ। বুথের ভিতর ভিডিওগ্রাফির জন্য নির্বাচনী বিধিভঙ্গের অভিযোগে জেলা প্রশাসনকে ভারতীর বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নিতে নির্দেশ দিয়েছে নির্বাচন কমিশন।