বিজেপির কাছে ধাক্কা খেল নীতীশ কুমার, ছয় জেডিইউ বিধায়ক সামিল পদ্মশিবিরে

278

ইটানগর: বিহারের মুখ্যমন্ত্রী নীতীশ কুমারের দল অরুণাচল প্রদেশে বিজেপির কাছে ধাক্কা খেল। সেখানকার জেডিইউ-র সাত বিধায়কের মধ্যে ছয়জনই পদ্মশিবিরে নাম লেখালেন। ৬০ সদস্য বিশিষ্ট অরুণাচল বিধানসভায় জেডিইউ-র রইল মাত্র একজন বিধায়কই। পিপলস পার্টি অফ অরুণাচলের এক বিধায়ক সহ বিধানসভায় বিজেপির সদস্য বেড়ে হল ৪৮। ছেড়ে যাওয়া বিধায়করা হলেন হায়েং মাংফি, জিক্কে টাকো, ডোংরু সিওঙ্গজু, তালেম তাবোহ, ক্যাঙ্গোং টাকু ও দোর্জি ওয়াংডি খর্মা।

যদিও তাঁদের মধ্যে তিনজনকে দলবিরোধী কার্যকলাপের জন্য নভেম্বর মাসে দলের তরফে নোটিশ দেওয়া হয়েছিল। রাজ্য জেডিইউ প্রধানের সঙ্গে আলোচনা না করে পরিষদীয় দলনেতা নির্বাচনের জন্যই এই নোটিশ দেওয়া হয়েছিল। জেডিইউ অরুণাচলে বিরোধী আসনে থাকলেও বিজেপি নেতৃত্বাধীন সরকারকে সমর্থন করে। এ বিষয়ে বিজেপি রাজ্য সভাপতি বিয়ুরাম ওয়াহগে বলেছেন, প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি ও মুখ্যমন্ত্রী প্রেমা খাণ্ডুর নেতৃত্বে উন্নয়ণমূলক কর্মকাণ্ড মানুষের আস্থা ও বিশ্বাস অর্জন করেছে।

- Advertisement -

যদিও এই ঘটনায় নীতীশ ঘনিষ্ঠরা অত্যন্ত হতাশ এবং ঘটনাকে বিজেপির বিশ্বাসঘাতকতা বলেই মনে করছেন। ঘটনাটি সপ্তাহান্তে দলের দুই দিনের জাতীয় পরিষদের বৈঠকেও উঠবে বলে মনে করা হচ্ছে। জেডিইউ নেতা কেসি ত্যাগী সংবাদংস্থাকে বলেছেন, আসনসংখ্যার নিরিখে আমাদের প্রধান বিরোধী দলের মর্যাদার দাবিদার। যদিও আমরা রাজ্যের বিজেপি সরকারকে পূর্ণ সমর্থন দিচ্ছি। বিরোধী দলের মর্যাদা পেলেও আমরা বন্ধুত্বপূর্ণ বিরোধী হব।

গত বছর অরুণাচলে জেডিইউ স্বীকৃত দলের মর্যাদা পেয়েছে। তারা উত্তর-পূর্বের এই রাজ্যে সাতটি আসন দখল করেছিল। বিজেপির পর দ্বিতীয় স্থানে ছিল। বিজেপির আসন সংখ্যা ছিল ৪১। জেডিইউ বিধায়কদের দলত্যাগে অরুণাচল বিধানসভায় বিরোধীদের শক্তি কমে হল ১২। এর মধ্যে চারজন কংগ্রেসের, চারজন ন্যাশনাল পিপলস পার্টির, একজন জেডিইউ এবং তিন নির্দল।