করোনার মধ্যেই দেশে বার্ড ফ্লু আতঙ্ক, সংক্রমণ ঠেকাতে প্রস্তুত বহু রাজ্য

231

নয়াদিল্লি: করোনার মাঝেই বার্ড ফ্লু আতঙ্ক বাড়ছে গোটা দেশে। গত দশ দিনে দেশজুড়ে হাজার হাজার পাখির মৃত্যু হয়েছে। ইতিমধ্যে একাধিক রাজ্য বার্ড ফ্লু-র হানা নিশ্চিত করেছে। সতর্কতা জারি করেছে কেন্দ্রীয় সরকারও। সংক্রমণ ঠেকাতে প্রস্তুত রয়েছে রাজ্যগুলি।

বার্ড ফ্লু-কে এভিয়ান ইনফ্লুয়েঞ্জাও বলা হয়। এখনও পর্যন্ত কেরল, মধ্যপ্রদেশ, হিমাচল প্রদেশ, রাজস্থানে বার্ড ফ্লু-র প্রকোপ সবচেয়ে বেশি বলে জানা গিয়েছে। কেরলে গত কয়েকদিনে ১২ হাজার হাঁস মারা যাওয়ার পর সতর্ক হয়েছে কর্ণাটক ও তামিলনাড়ু। কেরলের চারটি এলাকাকে এখনও পর্যন্ত বার্ড ফ্লু-র কেন্দ্র হিসেবে চিহ্নিত করেছে কেন্দ্র। রাজ্যের আলাপুঝ্ঝা ও কোট্টায়ামে পাখিদের মধ্যে এভিয়ান ইনফ্লুয়েঞ্জার এইচ৫এন৮ স্ট্রেন ধরা পড়ে।

- Advertisement -

কেরল, রাজস্থান এবং মধ্যপ্রদেশের পর মঙ্গলবার হিমাচল প্রদেশ বার্ড ফ্লু-র হানার কথা নিশ্চিত করে। সেখানকার ক্যাংরা এলাকাতেই ১৯০০-র বেশি পরিযায়ী পাখি এভিয়ান ফ্লুতে মারা গিয়েছে। বার্ড ফ্লু ভাইরাস এইচ৫এন১-এ মারা গিয়েছে ২,৪০৩টি পরিযায়ী পাখি। এছাড়াও, হরিয়ানার পঞ্চকুলায় জেলাতেই গত ১০ দিনে ৪ লক্ষ পাখির মৃত্যু হয়েছে বলে জানা গিয়েছে। তবে এখনও পর্যন্ত বার্ড ফ্লু-র হানার কথা নিশ্চিত করেনি সেখানকার সরকার। বিষয়টি নিয়ে তদন্ত চলছে। কেরল সীমান্তে ২৬টি চেকপোস্ট তৈরি করেছে তামিলনাড়ু সরকার। এখনও পর্যন্ত যে যে এলাকায় বার্ড ফ্লু সতর্কতা জারি হয়েছে, সেখানে হাঁস-মুরগি-ছাগলের মাংস, মাছ, ডিম এবং অন্যান্য পোলট্রিজাত পণ্যের কেনাবেচা এবং সরবরাহ বন্ধ রাখা হয়েছে। রাজ্যের পরিস্থিতি খতিয়ে দেখতে বুধবার জরুরি বৈঠক ডেকেছেন মধ্যপ্রদেশের মুখ্যমন্ত্রী শিবরাজ সিং চৌহান। সংক্রমণের ছড়িয়ে পড়া রুখতে কেন্দ্রীয় মৎস্য এবং প্রাণী কল্যাণ দপ্তরের তরফে ইতিমধ্যেই সমস্ত জাতীয় উদ্যান এবং অভয়ারণ্যকে সতর্কতা অবলম্বন করতে নির্দেশ দেওয়া হয়েছে। দিল্লিতে বিশেষ কন্ট্রোল রুম চালু করা হয়েছে। এই রাজ্য পশ্চিমবঙ্গে এখনও পর্যন্ত বার্ড ফ্লু-র কোনও অস্তিত্ব পাওয়া যায়নি।