বাতিল হয়নি মনোনয়ন, প্রত্যাহারের প্রশ্নও নেই: গুজব ওড়ালেন প্রার্থী

77

আসানসোল: বাতিল হতে পারে আসানসোল উত্তর বিধানসভা কেন্দ্রের বিজেপি প্রার্থী কৃষ্ণেন্দু মুখোপাধ্যায়ের মনোনয়ন। এমনই জল্পনা ছড়িয়েছিল আসানসোল শহরজুড়ে। বৃহস্পতিবার সেই জল্পনায় ইতি টেনে খোদ প্রার্থী দাবি করেন এসব নেহাতই গুজব। অন্যদিকে তৃণমূলের বিরুদ্ধে সুর চড়িয়ে তিনি বলেন, ‘আমার কেন্দ্রের ভোটারদের বিভ্রান্ত করতে এমন গুজব ছড়ানো হয়েছে।’

বুধবার থেকেই আসানসোল শহর জুড়ে গুঞ্জন শুরু হয় বিজেপি প্রার্থীর মনোনয়ন বাতিল ইস্যুতে। কারণ হিসেবে প্রাকাশ্য়ে আসে বিজেপি কৃষ্ণেন্দু মুখোপাধ্যায় একাধিক তথ্য গোপন করেছেন। যা নিয়ে জোর শোরগোল পড়ে গিয়েছিল রাজনৈতিক মহলে। অন্যদিকে, অস্বস্তিতে পড়েছিল খোদ গেরুয়া শিবিরও। যদিও শেষ অবধি এদিন জল্পনার অবসান ঘটালেন খোদ প্রার্থীই।

- Advertisement -

গোটা ঘটনাকে তৃণমূলের গেম প্ল্যান বলে দাবি করে বিজেপি প্রার্থী কৃষ্ণেন্দু মুখোপাধ্যায় বলেন, ‘গোটা বিষয়টি গুজব। মনোনয়ন পত্র জমা দেওয়ার সময় হলফনামা আকারে আমার সমস্ত তথ্যই নির্বাচন কমিশনে জমা দিয়েছি। কোন তথ্যই গোপন করিনি৷ এদিন নিয়ম মেনে আমার মনোনয়নপত্র স্ক্রুটনি করা হয়েছে।’ তিনি আরও বলেন, ‘আমার মনোনয়ন বাতিল করানোর একটা চক্রান্ত হয়েছিল৷ এই চক্রান্তের পেছনে যেমন তৃণমূল কংগ্রেস রয়েছে। তেমনই কিছু সরকারি আধিকারিকও রয়েছেন।’

কৃষ্ণেন্দুের অভিযোগ উড়িয়ে জেলা তৃণমূলের সাধারণ সম্পাদক অভিজিৎ ঘটক বলেন, ‘বিজেপি প্রার্থীর যা প্রতিচ্ছবি ও ইমেজ তাতে আমরাও চাই উনিই লড়াইয়ে থাকুন। আমরা কোনও গুজব ছড়াইনি। আমাদের তা করার কোন প্রয়োজনও নেই।’ তাঁর কথায়, একদিকে তৃণমূল কংগ্রেসের প্রার্থী রাজ্যের বিদায়ী আইনমন্ত্রী। অন্যদিকে ১৭টি ফৌজদারি মামলায় অভিযুক্ত বিজেপি প্রার্থী। সাধারণ মানুষের কাছে কী বার্তা যাচ্ছে তা ভোটের ফলাফলেই বোঝা যাবে। ২মে পর্যন্ত অপেক্ষা করলেই হবে।