জলপাইগুড়িতে সাত লক্ষ বই বিলি করবে বিজেপি

450

জলপাইগুড়ি : জলপাইগুড়ি জেলায় বিজেপি নির্বাচনি প্রচারের অঙ্গস্বরূপ সাত লক্ষ বই বণ্টনের জন্য বিশেষ অভিযানে নামছে। কেন্দ্রীয় নেতৃত্বের সিদ্ধান্ত অনুসারে প্রতিটি বুথ সভাপতির বাড়ির সামনে দলীয় পতাকা উত্তোলন করা বাধ্যতামূলক। পশ্চিমবঙ্গের বিজেপির সহ পর্যবেক্ষক অরবিন্দ মেনন এবং কেন্দ্রীয় নেতা শিবপ্রকাশ জি জলপাইগুড়ি জেলায় বিজেপির ঘরোয়া কোন্দল বন্ধ করে জেলা সভাপতি বাপি গোস্বামী এবং রাজ্য সহ সভাপতি দীপেন প্রামাণিককে একযোগে কাজ করার নির্দেশ দিয়েছেন। গেরুয়া শিবিরের অভ্যন্তরীণ মূল্যায়নে জলপাইগুড়ির সাতটি বিধানসভা ক্ষেত্রেই বিজেপি এগিয়ে আছে। সাতটি আসনকে নিশ্চিত করার জন্য একযোগে কাজ করা জরুরি বলে কেন্দ্রীয় নেতারা মনে করেন।

কলকাতা থেকে ‘আর নয় অন্যায়’ শীর্ষক একটি বইয়ের ৩ লক্ষ বাংলা সংস্করণ এবং ৫০ হাজার হিন্দি সংস্করণ পাঠানোর পাশাপাশি প্রধানমন্ত্রীর পশ্চিমবঙ্গবাসীর প্রতি আবেদন শীর্ষক একটি বইয়ের বাংলা সংস্করণ ৩ লক্ষ এবং হিন্দি সংস্করণ ৫০ হাজার পাঠানো হয়েছে জলপাইগুড়িতে। ৮ থেকে ১৬ ডিসেম্বর জেলার গ্রাম এবং শহর চষে বিজেপি নেতা-কর্মীরা এই বইগুলি বণ্টন করবেন। প্রধানমন্ত্রীর রাজ্যবাসীর উদ্দেশে লেখাটিতে আয়ুষ্মান ভারত এবং কৃষি পেনশন বাস্তবায়িত না করার বিষয়ে রাজ্য সরকারকে অভিযুক্ত করা হয়েছে। বিজেপির জলপাইগুড়ি জেলা সভাপতি বাপি গোস্বামী জানিয়েছেন, ইতিমধ্যেই তাঁরা সাত লক্ষ বই পেয়েছেন। নির্বাচনি নির্ঘণ্ট এখনও ঘোষিত না হলেও তাঁরা সময় নিয়ে প্রচারের কাজ এগিয়ে রাখতে চান। এগিয়ে রাখার অঙ্গ হিসাবেই তৃণমূল কংগ্রেস সরকারের ব্যর্থতার চিত্র, তথ্য ও পরিসংখ্যানযোগে বইয়ে মাধ্যমে প্রচার করবেন।

- Advertisement -

জলপাইগুড়ি জেলার বিজেপির অভ্যন্তরীণ কোন্দলের বিষয়টি রাজ্য কমিটির পাশাপাশি দলের কেন্দ্রীয় কমিটির নেতাদের মাথাব্যথার কারণ হয়ে দাঁড়িয়েছে। নির্ভরযোগ্য সূত্রে জানা গিয়েছে, শিলিগুড়িতে হালেই বিজেপির সাংগঠনিক বৈঠকে দলের পশ্চিমবঙ্গের সহ পর্যবেক্ষক অরবিন্দ মেনন এবং শিবপ্রকাশ জি বিবদমান দুই গোষ্ঠীর নেতা বাপি গোস্বামী এবং দীপেন প্রামাণিকের সঙ্গে কথা বলে বাপিবাবু এবং দীপেনবাবুকে একযোগে কাজ করার পরামর্শ দিয়েছেন। সূত্রের খবর, বিগত লোকসভা নির্বাচনে বিজেপি প্রার্থী জয়ন্ত রায়ের জয়ের পিছনে বাপিবাবুর অবদানের প্রশংসা করেন অরবিন্দ মেনন। এ ব্যাপারে বাপিবাবুকে প্রশ্ন করা হলে তিনি এ বিষয়ে কোনও মন্তব্য করতে চাননি।