ভোটের মুখে বিক্ষুব্ধদের শান্ত করতে বিজেপির জেলা সভাপতি বদল

131
ছবিটি প্রতীকী

বর্ধমান: নির্বাচন কমিশন এই রাজ্যের ভোটের নির্ঘণ্ট ঘোষণার দিনেই বিজেপির পূর্ব বর্ধমান সাংগঠনিক জেলা সভাপতি পদে বদল ঘাটানো হল। সন্দিপ নন্দীকে সরিয়ে রাজ্য বিজেপি নেতৃত্ব নতুন সভাপতি নির্বাচিত করলেন অভিজিৎ তা’কে। রাজ্য বিজেপির সহ সভাপতি প্রতাপ বন্দ্যোপাধ্যায় এই সংক্রান্ত পত্র শুক্রবার দলের একাধিক সাংগঠনিক কর্তার কাছে পাঠিয়ে দেন। অভিজিৎ তা’কে দ্রুত দায়িত্ব বুঝে নেওয়ার নির্দেশ দিয়েছেন দলের রাজ্য সহ সভাপতি। তবে ভোটের মুখে বিজেপির জেলা সভাপতি বদল নিয়ে জোর জল্পনা শুরু হয়েছে বর্ধমানের রাজনৈতিক মহলে।

বিজেপির বিদায়ী জেলা সভাপতি সন্দীপ নন্দী এই প্রসঙ্গে জানান, দল তাঁকে আরও বড় দায়িত্ব দিয়েছে। রাঢ়বঙ্গের বুথ পর্যবেক্ষক পদে বহাল হয়েছেন তিনি। নতুন জেলা সভাপতি অভিজিৎ তা’কে অভিনন্দন জানিয়ে সন্দীপ বলেন, ‘আসন্ন বিধানসভা নির্বাচনে আমরা সকলে কাঁধে কাঁধ মিলিয়ে কাজ করব।’ নতুন সভাপতি অভিজিৎ তা বর্ধমান শহরের বাইরে থাকায় তাঁর প্রতিক্রিয়া পাওয়া যায়নি।

- Advertisement -

সভাপতি পদে বদলের বিষয়ে বর্ধমানের রাজনৈতিক মহল মনে করছে, বিজেপির বিক্ষুব্ধ কর্মীরা অনেকদিন ধরেই সন্দীপ নন্দী ও তাঁর অনুগামীদের পদ থেকে সরিয়ে দেওয়ার দাবি জানিয়ে আসছিলেন। তা নিয়ে গত ২১ জানুয়ারি বিক্ষুব্ধদের ক্ষোভ আছড়ে পড়ে বর্ধমানের বিজেপি জেলা পার্টি অফিসে। ওই দিন পার্টি অফিসে ভাঙচুর চালানোর পাশাপাশি দুটি গাড়িতে আগুন ধরিয়ে দেওয়ার ঘটনাও ঘটে। পরিস্থিতি সামাল দিতে বর্ধমান থানার পুলিশকে হিমশিম খেতে হয়। ঘটনার পর রাজ্য বিজেপি নেতৃত্ব জেলা সভাপতি সহ ১৪ জনকে শোকজ করে। শোকজের জবাব দেওয়ার সাংগঠনিক পদে কোনও রদবদল না হওয়ায় বিক্ষুব্ধরা জেলার ৯টি বিধানসভা আসনে নির্দল প্রার্থী দাঁড় করানোর সিদ্ধান্ত নেন। কোনও কোনও জায়গায় দেওয়াল লিখনও শুরু করে দেন। বেগতিক বুঝে এরপরেই রাজ্য বিজেপি নেতৃত্ব পূর্ব বর্ধমান সাংগঠনিক জেলা বিজেপি সভাপতি পদে বদল ঘটনানোর সিদ্ধান্ত নিতে বাধ্য হন বলে মনে করছে রাজনৈতিক মহল।