‘ল্যাজপোড়া বিজেপি’, আলিপুরদুয়ারের কর্মী সভা থেকে তীব্র আক্রমণ মুখ্যমন্ত্রীর

168

ওয়েবডেস্ক: উন্নয়ন থেকে আদিবাসী আবেগ, দুইয়ের মিশেলেই আলিপুরদুয়ার প্যারেড গ্রাউন্ডের  সভা মঞ্চ থেকে কর্মী সমর্থকদের বার্তা দিলেন মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। চা সুন্দরী থেকে স্বাস্থ্যসাথী। খাদ্যসাথী থেকে রাজবংশী অ্যাকাডেমি।জনতার মন জয়ে নিজের সরকারের চালু করা কোনও প্রকল্পের কথাই এদিন জনতার সামনে তুলে ধরতে বাকি রাখেননি মুখ্যমন্ত্রী। ফের একবার মনে করিয়ে দেন প্রতিশ্রুতি দিয়েও বিজেপির চা বাগান খুলতে না পারার কথা।

এমনকী চা শ্রমিকদের মজুরি যে তাঁদের আমলে বেড়েছে সেকথা জানিয়ে বলেন, ‘ন্যূনতম মজুরি নিয়েও আমরা কমিটি গঠন করেছি।’ এদিন ভাষণের ছত্রে ছত্রে বিজেপিকে তুলোধোনা করেন মুখ্যমন্ত্রী। কেন্দ্রের শাসক দলকে ‘ল্যাজপোড়া বিজেপি’ আখ্যা দিয়ে মুখ্যমন্ত্রী বলেন, ‘আমরা ভয় পাইনা। কেউ ভয়ে পালিয়ে যাচ্ছে, যারা বিজেপিতে যাচ্ছে বুঝতে পারবে যখন ল্যাজে আগুন লাগিয়ে দিয়ে লঙ্কাকাণ্ড ঘটাবে।’ বিজেপির ‘সোনার বাংলা’ গড়ার স্লোগানকে কটাক্ষ করে মমতা বলেন, ‘সোনা চাইনা, রোটি কাপড়া মাকান চাই।’ ভোটের সময় বিজেপি টাকা দিলে তা নিয়ে খেয়ে নিতে বলেন মুখ্যমন্ত্রী। কিন্তু ভোট অবশ্যই জোড়াফুলে দেবার কথাও জানিয়ে দেন।মমতার বক্তব্য ‘আমি চাই শান্তি, ওরা চায় দাঙ্গা, আমরা চাই উন্নয়ন ওরা চায় বিসর্জন, আমরা চাই কর্মসংস্থান, ওরা চায় কর্ম সঙ্কোচন।’ করোনা পরিস্থিতিতে পরিযায়ী শ্রমিকদের ফেরার সময় ট্রেনের টিকিট না দেওয়ার প্রসঙ্গ তুলেও কেন্দ্রকে বেঁধেন মুখ্যমন্ত্রী। বলেন ‘আমরাই এদের টিকিটের ব্যবস্থা করেছি।’ এরপরই বিজেপিকে আক্রমণ করে মুখ্যমন্ত্রীর তোপ, ‘এরা রেল, বিএসএনএল, এলআইসি, কয়লা সব বেসরকারি করণ করে দিচ্ছে। পেট্রোল ডিজেলের দাম বাড়াচ্ছে’

- Advertisement -

বাজেট প্রস্তাবে বাংলায় ৬৫০০ কিমি রাস্তা করার প্রতিশ্রুতিকে কটাক্ষ করেও মুখ্যমন্ত্রী বলনে আমরা রাজ্যে ৮৫০০০ কিমি রাস্তা করে দিয়েছি।’ বিজেপিকে দাঙ্গাবাজ-লুঠেরাদের দল আখ্যা দিয়ে মুখ্যমন্ত্রীর আর্জি, এবার এদের বিদায় দিন।বলেন, ‘কোনও ভাবেই গুজরাট শাসন করবে না।বাংলাকে শাসন করবে বাংলাই।’