জনতার দরবারে বিজেপি সাংসদ খগেন মুর্মু

526
চাঁচলে জনতার দরবারে বিজেপি সাংসদ খগেন মুর্মু।

সামসী: স্থানীয় সাংসদের তরফে এলাকার মানুষের নানা অভাব-অভিযোগ শোনার জন্য জনতার দরবার অনুষ্ঠানের আয়োজন করা হয়েছিল।মঙ্গলবার চাঁচলের একটি বেসরকারি ভবনে সদস্য সংগ্রহ অভিযান এবং সাংগঠনিক আলোচনার পর এলাকার মানুষের সমস্যার কথা জানতে সরাসরি জনতার দরবারে বসেন উত্তর মালদার বিজেপি সাংসদ খগেন মুর্মু। এছাড়াও এদিন উপস্থিত ছিলেন বিজেপির জেলা কমিটির সম্পাদক দীপঙ্কর রামসহ আরও অনেকে।

এদিন জনতার দরবার অনুষ্ঠানে চাঁচলসহ উত্তরমালদার মোট জনা চল্লিশেক মানুষ জনতার দরবারে হাজির হয়ে নিজেদের নানা সমস্যার কথা জানিয়ে গেলেন। সাংসদ মন দিয়ে সকলের সমস্যা শোনেন। সকলের সমস্যা সমাধানের মৌখিক আশ্বাস দিয়েছেন তিনি। এদিন চাঁচল থানার কুশমাই গ্রামের সন্তানহীন এক দুঃস্থ বিধবা মহিলা তেতলি দাস চিকিৎসার জন‍্য সাহায্যের দাবি জানিয়েছেন সাংসদের কাছে। গত দুই বছর ধরে চর্মরোগ ভুগছেন তিনি। অর্থাভাবে চিকিৎসা করাতে পারেছেন না।

- Advertisement -

চাঁচলের ভগবানপুর গ্রাম পঞ্চায়েত এলাকার যুবক আব্দুল ওয়াহাব অত্র পঞ্চায়েতের দূর্নীতির বিরুদ্ধে বিডিও ও এসডিওকে লিখিত অভিযোগ করেছিলেন। সমস‍্যার সুরাহা হয়নি। অথচ মিথ‍্যা মামলা দিয়ে ফাঁসানো হয়েছে। এই সমস‍্যা নিয়ে সাংসদের কাছে দাবি পেশ করেন আব্দুল ওয়াহাব।

সাংসদ খগেন মুর্মু জানান, জনতার দরবারে এলাকার মানুষের যাবতীয় সমস্যা শুনলাম। কিছু সমস্যা ব্যক্তিগতভাবে সমাধানের চেষ্টা করা হবে। এছাড়াও কিছু সমস্যা, বিডিও, এসডিও, জেলা শাসককে বলে মেটানোর চেষ্টা করবেন। এরকম জনতার দরবার অনুষ্ঠানের আয়োজন করায় সাংসদ খগেন মুর্মুকে ধন্যবাদ জানিয়েছেন এলাকার মানুষ।

ভগবানপুর গ্রাম পঞ্চায়েতের উপ প্রধান সৈয়দ আরিফ বলেন, পঞ্চায়েতে কোনও দুর্নীতি হয়নি। আর কারও বিরুদ্ধে মিথ্যে মামলাও করা হয়নি। তৃণমূল নেতা তথা জেলা পরিষদের সদস্য সামিউল ইসলাম বলেন, সাংসদকে এলাকায় দেখা যায় না। এখন লোক দেখানো জনতার দরবার করে মানুষকে বিভ্রান্ত করতে চাইছেন। এখানে কোথাও দুর্নীতি হচ্ছে না। আমাদের জেলা সভানেত্রী মৌসম বেনজির নুর সাফ জানিয়েছেন, মানুষের জন্য কাজ করতে হবে। অন্যথায় দলের তরফেও ব্যবস্থা নেওয়া হবে।