গেরুয়া শিবির থেকে ঘাসফুলে যোগ পঞ্চায়েত সদস্যের

327

সুভাষ বর্মন, শালকুমারহাট: আলিপুরদুয়ার-১ ব্লকের শালকুমারহাটে শক্তি বাড়ল তৃণমূল কংগ্রেসের। শনিবার শালকুমার-২ গ্রাম পঞ্চায়েতের শালকুমারহাট বাজার এলাকার বিজেপির পঞ্চায়েত সদস্য বুদ্ধদেব বর্মন আনুষ্ঠানিকভাবে তৃণমূল কংগ্রেসে যোগদান করেন।

সাহেবপোঁতায় তৃণমূলের ব্লক কার্যালয়ে তাঁর হাতে ঘাসফুলের পতাকা তুলে দেন শাসক দলের ব্লক সভাপতি মনোরঞ্জন দে। তৃণমূলের ব্লক সভাপতি বলেন, করোনা পরিস্থিতিতে বিজেপির সাংসদ এলাকায় আসছেন না। মানুষের পাশে দাঁড়াচ্ছেন না। তাই বিজেপির অনেকেই রাজ্য সরকারের উন্নয়ন দেখে তৃণমূলে যোগদান করতে চাইছেন। এদিন শালকুমারহাটের বিজেপির একজন পঞ্চায়েত সদস্য আমাদের দলে যোগ দেন। তাঁর নেতৃত্বে আরও অনেকেই আমাদের দলে আসতে চাইছেন। কিন্তু করোনা পরিস্থিতির জন্য ধাপে ধাপে সেই যোগদান হবে।

- Advertisement -

মনোরঞ্জনবাবুর দাবি, ওই পঞ্চায়েত সদস্যের দলবদলে শালকুমারহাটে তৃণমূলের শক্তি আরও বাড়ল। দলবদল প্রসঙ্গে পঞ্চায়েত সদস্য বুদ্ধদেব বর্মন বলেন, বিজেপিতে থেকে শালকুমারহাটের উন্নয়ন বাধা পাচ্ছিল। এলাকার উন্নয়নের স্বার্থেই তৃণমূল কংগ্রেসে যোগদান করলাম। তবে বিজেপির দাবি, এই দলবদলে সাংগঠনিক কোনও ক্ষতি হবে না। দলের ১০ নম্বর মণ্ডল সভাপতি ক্ষিতীশ বর্মন বলেন, ওই পঞ্চায়েত সদস্য অনেক আগে থেকেই তৃণমূলের দিকে ঝুঁকে ছিলেন। তাঁকে এজন্য দল থেকে কয়েকবার শোকজও করা হয়েছিল। তাই এখন তিনি তৃণমূলে যোগ দিলেও এলাকায় সংগঠনের কোনও ক্ষতি হবে না।