ফালাকাটার ময়রাডাঙ্গায় বিজেপির ‘শুনুন চাষি ভাই’ কর্মসূচি

409

ফালাকাটা: রবিবার ফালাকাটার ময়রাডাঙ্গা এলাকায় বিজেপির ‘শুনুন চাষি ভাই’ কর্মসূচি হয়। সেখানে দলীয় নেতা-নেত্রীরা উপস্থিত ছিলেন। তবে বিজেপির এই তৎপরতাকে গুরুত্ব দিতে চায়নি তৃণমূল কংগ্রেস।

ফালাকাটা শহরাঞ্চল বাদে এই বিধানসভা কেন্দ্রের ১০টি গ্রাম পঞ্চায়েত এলাকাই কৃষি অধ্যুষিত। তাই এখানে যেকোনও নির্বাচনে কৃষক ভোটই মূল ফ্যাক্টর। ২০১১ সালে সংখ্যাগরিষ্ঠ কৃষক ভোট পেয়েই এই আসনে বিধায়ক নির্বাচিত হন তৃণমূলের অনিল অধিকারী। কিন্তু গত লোকসভা নির্বাচনে তৃণমূলের কৃষক ভোটে থাবা বসায় বিজেপি। এই কেন্দ্রে বিজেপি তৃণমূলের থেকে ২৭ হাজার ভোট বেশি পায়।

- Advertisement -

তবে কয়েক মাস আগে কেন্দ্রের কৃষি আইনের বিরোধীতায় সোচ্চার হয়ে ওঠে তৃণমূল। শাসক দলের এই বিরোধীতাই চিন্তার কারণ হয়ে দাঁড়ায় বিজেপির। এজন্য গত ৫ নভেম্বর ফালাকাটায় এসে একাধিক কর্মসূচিতে অংশগ্রহণ করেন বিজেপির কিষান মোর্চার রাজ্য সহ সভানেত্রী শ্রীরুপা মিত্র চৌধুরী। এদিন ময়রাডাঙ্গা গ্রাম পঞ্চায়েত এলাকার ১৩/১১৪ নম্বর বুথে কৃষি জমিতে গিয়ে ‘শুনুন চাষি ভাই’ কর্মসূচি পালন করেন বিজেপির নেতারা। ওই কর্মসূচিতে উপস্থিত ছিলেন বিজেপির মাদারিহাটের বিধায়ক মনোজ টিগগা, দুই জেলা সহ সভাপতি নারায়ণ মণ্ডল, ভূষণ মোদক, কিষান মোর্চার উত্তরবঙ্গের কো-কনভেনার ডায়না ঘোষ, কিষান মোর্চার জেলা সভাপতি সুজিত সাহা প্রমুখ।

সূত্রের খবর, কেন্দ্রের কৃষি আইন নিয়ে তৃণমূল কংগ্রেস যেভাবে বিরোধীতা করেছে, এখন কৃষকদের সঠিক তথ্য জানাতে হিমসিম খেতে হচ্ছে বিজেপিকে। এজন্যই সরাসরি জমিতে গিয়ে কৃষকদের বোঝানোর চেষ্টা করছেন বিজেপির নেতারা। এদিনের কর্মসূচিতে উপস্থিত নেতারা কেন্দ্রের কৃষি আইনের স্বপক্ষে একাধিক যুক্তি তুলে ধরেন।

সংগঠনের জেলা সভাপতি সুজিত সাহা বলেন, ‘কেন্দ্রের কৃষি আইন কৃষকদের ভালোর জন্যই হয়েছে। তৃণমূল এনিয়ে কৃষকদের ভুল বুঝিয়েছে। এখন আমরা মাঠে নেমেছি। ‘শুনুন চাষি ভাই’ কর্মসূচির মাধ্যমে তৃণমূলের অপব্যাখার কথা আমরা তুলে ধরছি। এর ফলে কৃষকদের একাংশের ভুল ভেঙেছে। ফালাকাটায় জোরদারভাবে এই কর্মসূচি হচ্ছে। এখানকার সংখ্যাগরিষ্ঠ কৃষক ভোট বিজেপির সঙ্গেই রয়েছে।’

তবে বিজেপির এসব কর্মসূচিকে লোক দেখানো বলে দাবি করেছে তৃণমূল কংগ্রেস। কিষান ও খেতমজদুর তৃণমূল কংগ্রেসের ফালাকাটা ব্লক সভাপতি সুনীল রায় বলেন, ‘কেন্দ্রের কৃষি আইন যে কতটা ক্ষতিকর তা ফালাকাটার কৃষকরা জানেন। রাজ্য সরকার কৃষকদের একাধিক প্রকল্পের সুবিধা দিয়েছে। আমরা সব সময় কৃষকদের সঙ্গে আছি। আর ভোটের কারণে বিজেপি এখন কৃষকদের পাশে থাকার নাটক করছে। তাই ওদের এসব লোক দেখানো কর্মসূচির কোনও গুরুত্ব নেই।’