বিজেপি-তৃণমূল সংঘর্ষ, গ্রেপ্তার ২

বর্ধমান: তৃণমূল ও বিজেপির মধ্যে সংঘর্ষের ঘটনায় উভয়পক্ষের দু’জন গ্রেপ্তার হল। ধৃতদের নাম জীবন বাউড়ি ও সামশেদ শেখ ওরফে আলু। পূর্ব বর্ধমানের ভাতার থানায় হরিবাটী গ্রামে ধৃতদের বাড়ি। জীবন এলাকায় বিজেপির কর্মী হিসাবে পরিচিত।

রবিবার বিকালে ভাতারের হরিবাটী গ্রামে দু’পক্ষের মধ্যে মারপিটের ঘটনা ঘটে। উভয়পক্ষই একে অপরের বিরুদ্ধে ভাতার থানায় অভিযোগ দায়ের করে। দায়ের হওয়া অভিযোগের ভিত্তিতে পুলিশ দু’জনকে গ্রেপ্তার করেছে। সোমবার পুলিশ ধৃতদের বর্ধমান আদালতে পেশ করে। বিচারক তাদের বিচারবিভাগীয় হেপাজতে পাঠানোর নির্দেশ দিয়েছেন।

- Advertisement -

পুলিশ ও স্থানীয় সূত্রে জানা গিয়েছে, ভাতারের বনপাশ অঞ্চলে ২১ জুলাইয়ের শহীদ দিবস পালন নিয়ে রবিবার তৃণমূলের কর্মীসভা ছিল। কর্মীসভার শেষে বিকাল পাঁচটা নাগাদ তৃণমূলের কর্মীরা তাঁদের দলীয় পতাকা নিয়ে বাড়ি ফিরছিলেন। তৃণমূল কর্মী শেখ ইনসানের অভিযোগ, হরিবাটী গ্রামের মোড়ের কাছে বিজেপির লোকজন তাঁদের উপর হামলা চালায়। এই খবর পেয়ে তৃণমূলের লোকজন সেখানে জড়ো হলে বিজেপির লোকজন বোমাবাজি করতে করতে সেখান থেকে পালিয়ে যায়।

বোমার আঘাতে শেখ রহমত নামে এক তৃণমূল কর্মী জখম হন। ভাতার হাসপাতালে তাঁর চিকিৎসা করানো হয়।যদিও এই অভিযোগ অস্বীকার করে বিজেপির হানিফ শেখ পুলিশকে জানিয়েছেন, রবিবার সন্ধ্যা ৬টা নাগাদ হরিবাটী মোড়ে বিজেপির মিছিল ছিল। সেই মিছিলে যোগ দেবার জন্য বিজেপির লোকজন জড়ো হয়েছিল। সেই সময় শেখ ইনসানের নেতৃত্বে তৃণমূলের লোকজন তাঁদের উপর হামলা চালায়। বিজেপি কর্মীদের মারধরও করা হয়।