বিধানসভা নির্বাচনে রাজ্যে পদ্মফুল ফুটবে, দাবি শুভেন্দুর

210

নন্দীগ্রাম: নন্দীগ্রামে সহায়তা কেন্দ্র ভাঙচুরের প্রতিবাদে সোমবার মৌন প্রতিবাদ মিছিল করলেন বিজেপি নেতা শুভেন্দু অধিকারী। সহায়তা কেন্দ্রে ভাঙচুর, বিজেপির তৈরি গেট এবং পতাকা পোড়ানোর প্রতিবাদে এদিন সকালে নন্দনায়কবাড়ে থেকে মৌন মিছিল শুরু হয়। যার নেতৃত্বে ছিলেন শুভেন্দু অধিকারী। মিছিলে অংশ নেন বহু মানুষ। মিছিলটি নন্দীগ্রাম থানায় গিয়ে শেষ হয়। এরপর সেখানে একটি সভা করেন শুভেন্দু। সভা মঞ্চ থেকে তিনি বলেন, ‘এই সহায়তা কেন্দ্র নন্দীগ্রামের মানুষের সেবায় নিয়োজিত ছিল। এই অফিস ভাঙচুর কারা করেছে আমি জানি। সিসিটিভি ক্যামেরাতে পুরো ঘটনার ছবি আমি পেয়েছি। নিরাপত্তার কারণে এখন অফিসটা বন্ধ রাখার সিদ্ধান্ত নিয়েছি। অফিস ভাঙচুরের ঘটনায় সিসিটিভি ফুটেজে যাঁদের দেখা গিয়েছে তাঁদের নামে এফআইআর করা হয়েছে।’ পাশাপাশি শুভেন্দু এদিন দাবি করেন, আগামী বিধানসভা নির্বাচনে রাজ্যে পদ্মফুল ফুটবে।

তিনি আরও বলেন, ‘যাঁরা পাঁচটা পয়সা দেয় না, পাঁচতলা ছয়তলা বাড়ি করেছে, গুষ্টিসুদ্ধ চাকরি নিয়েছে, মাছের ভেড়ি, খাসজমি দখল করেছেন, তাঁরাই আজ এসব ঘটনা ঘটাচ্ছেন।’ তিনি উপস্থিত দলীয় কর্মীদের অভয় দিয়ে বলেন, ‘এর আগেও আমি বহুবার আক্রান্ত হয়েছি। শারীরিকভাবেও নিগৃহীত হয়েছি। এসবে ভয় আমি পাই না। আপনারাও ভয় পাবেন না। নির্বাচনী বিধি চালু হতে দিন। আধা সামরিক বাহিনী আর ইলেকশন কমিশনের রোলটা দেখবেন।’

- Advertisement -

শুভেন্দু এদিন বলেন, ‘নন্দীগ্রাম আন্দোলন আমারও নয় মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়েরও নয়। এটা নন্দীগ্রামের মানুষের আন্দোলন।’ তিনি এদিনও নাম না করে অভিষেক বন্দ্যোপাধ্যায়কে তোলাবাজ ভাইপো বলে কটাক্ষ করেন। শুভেন্দুর দাবি, আগামী বিধানসভা নির্বাচনে রাজ্যে পদ্মফুল ফুটবে। বিজেপি সরকার ক্ষমতায় আসছে আপনারা নিশ্চিন্তে থাকুন। বিষয়টি বুঝতে পেরে পুলিশ খুব চাপে আছে।’