বাড়ি ফিরিয়েছিল পুলিশ, ফের ঘরছাড়া মহিলা বিজেপি কর্মী!

224

বর্ধমান: পুলিশের সহযোগীতার ফেরার পরেও ফের একবার ঘরছাড়া হলেন এক মহিলা বিজেপি কর্মী রীণা যাদব সহ তাঁর পরিবার। ঘটনার প্রেক্ষিতে বর্ধমান থানা পুলিশের দ্বারস্থ ওই বিজেপি কর্মী। যদিও তৃণমূলের তরফে সমস্ত অভিযোগ অস্বীকার করা হয়েছে। ঘটনাটি ঘটেছে বর্ধমানের সদরঘাট এলাকার।

বিজেপি কর্মী রীনা যাদবের কথায়, বিধানসভা নির্বাচনে গেরুয়া শিবিরের হয়ে কাজ করেছিলেন তিনি। ফলস্বরূপ ভোট পরবর্তীকালে সপরিবার ঘর ছাড়া হতে হয় তাঁকে। দীর্ঘদিন ঘরছাড়া ছিলেন। অবশেষে সপ্তাহ খানেক আগে বর্ধমান থানার পুলিশের উদ্যোগে বাড়ি ফেরেন তিনি। অভিযোগ, বাড়ি ফিরতেই ফের তৃণমূল আশ্রিত দুস্কৃতীরা
তাঁর বাড়িতে হামলা চালায়। স্বামী ও সন্তান সহ তাঁকেও মারধর করা হয়। রীণা যাদব বলেন, ‘বিজেপি করায় সদরঘাটের বাড়িতে আমাদের থাকা যাবে না জানিয়েছে তৃণমূলের ওই দুস্কৃতীরা। স্বাভাবিকভাবেই ফের ঘরছাড়া হতে বাধ্য।’

- Advertisement -

জেলা বিজেপির সহ-সভাপতি প্রবাল রায় বলেন, ’রাজ্যে গণতন্ত্র বলে আর কিছু নেই। পরিকল্পনা মাফিক পুলিশকে দিয়ে ঘরে ফিরিয়ে নিয়ে বিজেপি কর্মীদের উপরে সন্ত্রাস চালানো হচ্ছে। এভাবে বেশীদিন চলতে পারে না। বিজেপি আন্দোলনে নামবে।’

অভিযোগ অস্বীকার করে তৃণমূল কংগ্রেসের রাজ্যের মুখপাত্র তথা পূর্ব বর্ধমান জেলা পরিষদের সহকারী সভাধিপতি দেবু টুডু বলেন, ‘গণতন্ত্র গুজরাত, উত্তরপ্রদেশে নেই। বাংলায় গণতন্ত্র আছে বলেই তাঁদের দলের নির্দেশে ঘরছাড়া বিজেপি কর্মী সমর্থকদের বাড়ি ফিরিয়ে দেওয়া হয়েছে। কোথায়ও যদি এমন কোনও বিচ্ছিন্ন ঘটনা ঘটে থাকে তাহলে তার ব্যবস্থা নেওয়া হবে। পুলিশ প্রশাসনও বিষয়টি দেখছে।’