বিজেপির মহিলা সমর্থকরাই এখন তৃণমূলের ‘সফট টার্গেট’ : অভিযোগ অগ্নিমিত্রার

115

বর্ধমান: বিজেপির মহিলা  সমর্থকরাই এখন তৃণমূলের ‘সফট টার্গেট’। কোনও মহিলা বিজেপির সমর্থক হলে এবং ‘জয় শ্রী রাম’ বা ‘ভারত মাতা কি জয়’ বললে তাকে ধর্ষণ করে দেওয়ার হুমকি দেওয়া হচ্ছে। ‘ধর্ষণ করে দেব’ এই কথাটাই  এখন তৃণমূলের ‘ফেভারিট ওয়ার্ড’ হয়ে দাঁড়িয়েছে বলে রবিবার পূর্ব বর্ধমানের কালনায় এসে মন্তব্য করেন বিজেপির মহিলা মোর্চার রাজ্য সভানেত্রী অগ্নিমিত্রা পাল। তবে বিজেপি নেত্রীর এহেন মন্তব্যের তীব্র প্রতিবাদ জানিয়েছেন তৃণমূল নেতৃত্ব। ভোট পরবর্তীতে নির্যাতিত কালনা মহকুমার মহিলা কর্মীদের সঙ্গে এদিন  দেখা করতে আসেন অগ্নিমিত্রা পাল।

নেত্রী দাবি করেন, তৃণমূলের দুষ্কৃতি বা পদাধীকারীদের শক্ত হাতে নিয়ন্ত্রণ করার ক্ষমতা পুলিশের নেই। কারণ পুলিশও জানে কড়া ব্যবস্থা নিতে গেলে তাঁকেও সরিয়ে হয়েযেতে হবে। পুলিশ পুলিশের মতোই শুধু চুপ করে বসে আছে। তৃণমূল কংগ্রেস সরকার কে স্বৈরাচারি, অত্যাচারী, দুর্নীতিগ্রস্ত সরকার বলে অখ্যা দিয়ে অগ্নিমিত্রা বলেন, ‘এই রাজ্যের মুখ্যমন্ত্রী দেশের প্রধানমন্ত্রীকে মানেন না ,জাতীয় মানবাধিকার কমিশনকেও মানেন না। এখন আবার আদালতকেও মানছেন না।‘

- Advertisement -

অগ্নিমিত্রার বক্তব্যের কড়া সমালোচনা করে  তৃণমূলের রাজ্যের মুখপত্র দেবু টুডু বলেন, ‘গোটা দেশবাসী জানেন খুন ধর্ষণের স্বর্গরাজ্য  উত্তরপ্রদেশ। এই বাংলার মহিলারাও সেটা জানেন বলে ভোটে ওদের প্রত্যাক্ষাণ করেছেন। পরাজয়ের পর দিশেহারা হয়ে গিয়ে বিজেপির নেতা নেত্রীরা এখন শুধু পাগলের প্রলাপ বকে চলেছেন। বর্ধমানের শান্ত পরিবেশকে অশান্ত করার জন্যই এইসব মন্তব্য করেছেন উনি।‘