তৃণমূলের সন্ত্রাস বন্ধের দাবিতে কমিশনারকে স্মারকলিপি বিজেপির লিগ্যাল সেলের

86

আসানসোল: গোটা রাজ্যের পাশাপাশি পশ্চিম বর্ধমান জেলার আসানসোলে সন্ত্রাসের অভিযোগ উঠেছে তৃণমূল কংগ্রেসের বিরুদ্ধে। বিজেপি নেতা ও কর্মীদের উপরে হামলার অভিযোগে শুক্রবার আসানসোল দুর্গাপুরের পুলিশ কমিশনার অজয় ঠাকুরকে একটি স্মারকলিপি দেওয়া হয় আসানসোল জেলা বিজেপির লিগ্যাল সেলের তরফে। মোট ছয়টি দাবি লিগ্যাল সেলের স্মারকলিপিতে উল্লেখ করা হয়েছে। এই স্মারকলিপির প্রতিলিপি রাজ্যপাল জগদীপ ধনকড়, মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়, বিজেপির সর্বভারতীয় সভাপতি জেপি নাড্ডা ও রাজ্য সভাপতি দিলীপ ঘোষের কাছে পাঠানো হয়েছে।

এই প্রসঙ্গে স্মারকলিপি দেওয়ার পর বিজেপি লিগ্যাল সেলের তরফে আইনজীবী পীযুষ কান্তি গোস্বামী বলেন, ‘গত ২ মে রাজ্য বিধানসভা নির্বাচনের ফল বেরনোর পরে আসানসোলের বিভিন্ন এলাকায় তৃণমূলের গুন্ডারা সন্ত্রাস চালাচ্ছে। বিশেষ করে জামুড়িয়া ও পান্ডবেশ্বরের পরিস্থিতি সবচেয়ে খারাপ। সব মিলিয়ে ১০০ পরিবার ঘর ছাড়া। তাদের ঘরবাড়িতে হামলা করে ভাঙ্গচুর চালিয়ে আগুন লাগানো হয়েছে। সেইসব পরিবারের সদস্যরা আসানসোল জেলা বিজেপির কার্যালয়ে এসে আশ্রয় নিয়েছে। ওইসব পরিবারকে আর্থিক ক্ষতিপূরণ দিতে হবে। এলাকায় শান্তি শৃঙ্খলা ফিরিয়ে আনতে হবে। পুলিশ কমিশনারকে আমাদের দাবি পূরণের জন্য দ্রুত পদক্ষেপ গ্রহণ করতে বলা হয়েছে। তা না হলে আমরা বৃহত্তর আন্দোলনে নামবো।‘

- Advertisement -

যদিও তৃণমূল কংগ্রেসের তরফে বিজেপির লিগ্যাল সেলের করা অভিযোগ অস্বীকার করা হয়েছে। দলের রাজ্য সম্পাদক ভি শিবদাসন বলেন, ‘দলনেত্রী তথা রাজ্যের মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় দলের সব স্তরের নেতা ও কর্মীদের সংযত হতে বলেছেন। কেউ যাতে আইন নিজের হাতে না নেয় তাও বলা হয়েছে।‘

আসানসোল দুর্গাপুর পুলিশ কমিশনারেটের অফিস সূত্রে জানানো হয়েছে, সব দাবি খতিয়ে দেখে ব্যবস্থা নেওয়া হবে।