বিজেপি ক্ষমতায় এলে বাংলায় হবে লাভ জিহাদ বিরোধী আইন: নরোত্তম মিশ্র

181

দুর্গাপুর: বাংলায় সরকার গঠন করবে বিজেপি। আর তারপরই এখানে মধ্যপ্রদেশের মতো লাভ জিহাদ বিরোধী আইন আনা হবে। পশ্চিম বর্ধমান জেলার দুর্গাপুরের মেনগেট এলাকায় জেলা বিজেপির এক সভায় এমনই মন্তব্য করলেন মধ্যপ্রদেশের স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী নরোত্তম মিশ্র। যা নিয়ে শুরু হয়েছে রাজনৈতিক বিতর্ক। সভায় অন্যদের মধ্যে ছিলেন বর্ধমান দুর্গাপুর কেন্দ্রের বিজেপি সাংসদ সুরিন্দর সিং আলুওয়ালিয়া, জেলা সভাপতি লক্ষ্মণ ঘোড়ুই সহ অন্যান্যরা।

নরোত্তম মিশ্র বলেন, ‘কলকাতা, বর্ধমান, দুর্গাপুর যেখানে আগে বিজেপির কর্মীরা পতাকা লাগাতে ভয় পেতেন, এখন সেই এলাকায় অন্য ছবি দেখা যাচ্ছে। এর থেকে স্পষ্ট হয়েছে যে, রাজ্যের পরিবর্তন নিশ্চিত। তারুণ্যের আবেগ, উৎসাহ ও তাদের চোখ বলছে যে, রাজ্যে পরিবর্তন এসেছে।’ মধ্যপ্রদেশের স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী আরও বলেন, ‘সত্যিকারের লড়াই স্বাধীনতা সংগ্রামের ছায়ায় সমৃদ্ধ হয় ও ইতিহাস বদলে দেয় যুবসমাজ। বাংলার যে নির্বাচন কোনও সাধারণ নির্বাচন নয়, সমগ্র জাতি বাংলার নির্বাচনের দিকে নজর দিচ্ছে। এই নির্বাচন বাংলার অত্যাচার, অবিচারের প্রতিবাদ ও বিজেপিকে বরণ করার নির্বাচন। বিজেপি কর্মীদের উপর অত্যাচার আর সহ্য করা হবে না। নির্বাচনের প্রচার থেকে শুরু করে বুথ পর্যন্ত গিয়ে ভোট দেওয়া পর্যন্ত সবকিছুরই নিরাপত্তার ব্যবস্থা করা হবে।’

- Advertisement -

তিনি বলেন, ‘রাজ্যের মানুষ মমতা দিদির দুরাচার, অবিচার আটকানোর সুযোগ পেয়েছেন। যাই হোক না কেন, বাংলাকে তার পুরোনো ঐতিহ্যে ফিরিয়ে আনতে হবে। স্বামী বিবেকানন্দ, বিশ্ব কবি রবীন্দ্রনাথ ঠাকুরের বাংলাকে অত্যাচারীদের হাত থেকে সরিয়ে সোনার বাংলা করতে হবে। রাজ্যে বিজেপির সরকার গঠন হওয়ার সঙ্গে সঙ্গে মধ্যপ্রদেশের মতোই লাভ জিহাদের আইন জোরদার হবে ও লাভ জিহাদের মতো অপরাধ দমনে আইনটি পাস করা হবে।’ যদিও মধ্যপ্রদেশের স্বরাষ্ট্রমন্ত্রীর বক্তব্যকে গুরুত্ব দিতে চাইছেন না রাজ্যের শাসকদল তৃণমূল পর্যায়ের পশ্চিম বর্ধমান জেলা নেতৃত্ব। তাঁরা বলেন, ‘বহিরাগতরা এসে দিবা স্বপ্ন দেখছেন।’