বিজেপির পতাকা, ফেস্টুন ছেঁড়ার অভিযোগ

129

গাজোল: বিজেপির নির্বাচনি কার্যালয়ে দুষ্কৃতী হানা। দলীয় পতাকা, প্রধানমন্ত্রী ও প্রার্থীর ছবি দেওয়া ফেস্টুন ছিঁড়ে ফেলা হয়েছে বলে অভিযোগ। গাজোল বিধানসভা কেন্দ্রের আলাল অঞ্চলে এই ঘটনার প্রতিবাদে সরব হয়েছেন বিজেপির নেতা-কর্মীরা। তাঁদের অভিযোগ, তৃণমূল আশ্রিত দুষ্কৃতীরাই একাজ করেছে। ঘটনায় গাজোল থানায় লিখিত অভিযোগ দায়ের করেছেন বিজেপির ১২ নম্বর বুথ সভাপতি স্বরূপ সরকার। যদিও এই অভিযোগ অস্বীকার করেছে তৃণমূল নেতা ফারুখ হোসেন। তৃণমূলের পালটা দাবি, এলাকায় অশান্তি ছড়াতেই একাজ করেছে বিজেপি। অভিযোগের ভিত্তিতে ঘটনার তদন্ত শুরু করেছে পুলিশ।

বিজেপি নেতা স্বরূপ সরকারের অভিযোগ, রবিবার রাতে নির্বাচনি কার্যালয়ে দলীয় কর্মসূচি সেরে বাড়ি ফিরে যান। সোমবার সকালে এসে দেখেন, কার্যালয়ের দলীয় পতাকা এবং প্রধানমন্ত্রী ও প্রার্থীর ছবি দেওয়া ফেস্টুন ছিঁড়ে পড়ে রয়েছে। তাঁর দাবি, গতরাতে দলীয় কার্যালয় থেকে কিছুটা দূরে বহিরাগতদের নিয়ে মদের আসর বসিয়েছিল তৃণমূলের লোকেরা। রাতে তৃণমূলের লোকেরাই এই ধরনের ঘটনা ঘটিয়েছে বলে দাবি বিজেপি নেতার। অবাধ ও শান্তিপূর্ণ নির্বাচনের জন্য এখন থেকেই এলাকায় কেন্দ্রীয় বাহিনী মোতায়েনের আবেদন জানানো হচ্ছে বলেও জানিয়েছেন বিজেপি নেতৃত্ব।

- Advertisement -

যদিও এই অভিযোগ মিথ্যে ও ভিত্তিহীন বলে দাবি করেছেন তৃণমূল নেতা ফারুখ হোসেন। তৃণমূল এই ধরনের রাজনীতিতে বিশ্বাসী নয় বলে জানান তিনি। বিজেপির বিরুদ্ধে তৃণমূল নেতার পালটা অভিযোগ, ‘বিজেপির দলীয় কার্যালয়েই প্রতিদিন রাতে মদের আসর বসছে। ভোটারদের প্রভাবিত করার চেষ্টা চালাচ্ছে তারাই। গতকাল যেই ঘটনা ঘটেছে তা বিজেপির অন্তর্দ্বন্দ্বের বহিঃপ্রকাশ। তারা নিজেদের মধ্যেই মারপিট করে ফ্লেক্স, দলীয় পতাকা ছিঁড়ে তার দায় চাপাচ্ছে তৃণমূলের ঘারে।’