সামাজিক বার্তা তুলে হোর্ডিং টাঙিয়ে প্রচার বিজেপির

84

মালবাজার: সামাজিক বার্তা তুলে হোর্ডিং টাঙিয়ে মাল শহরে অভিনব প্রচার শুরু করল বিজেপি। সরাসরি দলের পক্ষে ভোট চাওয়া না হলেও সুকৌশলে বার্তা তুলে ধরা হয়েছে। বিজেপির তরফে বলা হয়েছে সামগ্রিক প্রেক্ষাপট সম্পর্কে জনগণকে আরও সচেতন ও অবহিত করতেই এই প্রচার। বিভিন্ন মহল থেকেই কর্মকাণ্ডের দিকে নজর রাখছে। মাল শহরের ৯, ১০ নম্বর ওয়ার্ডের গুরুত্বপূর্ণ এলাকাগুলিতে ইতিমধ্যে বিজেপি বড় হোর্ডিং লাগিয়েছে। কলোনি ময়দান লাগোয়া এলাকা ও দক্ষিণ কলোনি এলাকায় মঙ্গলবার বড় হোর্ডিংগুলি লাগানো হয়। হোর্ডিংয়ে বিজেপির দলীয় প্রতীক পদ্মফুল আছে। তবে কোথাও বিজেপির নাম ব্যবহার করা হয় নি।

মাল শহর মণ্ডল বিজেপির সভাপতি দেবাশীষ পাল, অন্যতম সাধারণ সম্পাদক নবীন সাহা ছাড়াও রাকেশ নন্দী, বরুণ মজুমদার, অচিন্ত্য দত্ত প্রমুখ কর্মসূচিতে নেতৃত্ব দান করেছেন। হোর্ডিং গুলিতে নানা বার্তা লেখা আছে। একটি হোর্ডিংয়ে লেখা হয়েছে-‘গণতন্ত্রের প্রহসন/বাংলার পঞ্চায়েত ভোট’, তার নিচে ইংরেজিতে লেখা এডুকেশন টু অল। আরেকটি হোর্ডিংয়ে লেখা- ‘চলো ভোট দিতে যাই ‘, নিচে ইংরেজিতে বার্তা সেভ আওয়ার এনভাইরনমেন্ট। আরেকটি হোর্ডিংয়ে বর্তমান পরিস্থিতি তুলে ধরে লেখা- ‘আপনার সুরক্ষা মাস্কে/সবার সুরক্ষা  ভোটে। নিচে লেখা সে নো টু প্লাস্টিক। এভাবেই নিত্য নতুন ভাবে হোর্ডিংয়ের মাধ্যমে সুকৌশলে বার্তা দেওয়ার চেষ্টা করা হয়েছে।

- Advertisement -

বিজেপির মাল শহর মণ্ডল কমিটির অন্যতম সাধারণ সম্পাদক নবীন সাহা বলেন, ‘আমরা সামাজিক নানা বিষয়ে হোর্ডিংয়ের মাধ্যমে তুলে ধরতে চেষ্টা করেছি। মানুষ সচেতন। তাঁরা সবই জানেন। আমরা তাদেরকে আরেকবার সামগ্রিক প্রেক্ষাপট তুলে ধরতে চেষ্টা করেছি মাত্র। আমরা শহর জুড়ে বিভিন্ন এলাকায় নিয়ম-নীতি মেনেই হোর্ডিং লাগাবো। সামাজিক কর্মকাণ্ডের বার্তাও তুলে ধরা হবে।’

বিজেপির মাল শহর মণ্ডল কমিটির সভাপতি দেবাশীষ পাল বলেন, ‘আমরা ধারাবাহিকভাবে সাংগঠনিক কর্মসূচি করছি। একে অপরের নির্বাচনী প্রচারে বিষয়ে নজর রাখছে বিভিন্ন রাজনৈতিক মহল গুলিও।’

তৃণমূল কংগ্রেসের মাল শহর কমিটির অন্যতম সাধারণ সম্পাদক অমিত কুমার দে বলেন, ‘অন্য কোনও রাজনৈতিক দলের প্রচার সম্পর্কে আমাদের কোনও বক্তব্য নেই। আমরা সারা বছরই জনগণের সঙ্গে থাকি।মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের নেতৃত্বে রাজ্যে ব্যাপক উন্নয়নের কর্মকাণ্ড সকলেই জানেন এবং সুবিধাও পাচ্ছেন। উন্নয়নই আমাদের শ্লোগান।’

সিপিএমের মাল এরিয়া কমিটির নেতা রাজা দত্ত বলেন, ‘আমরা বাড়ি বাড়ি প্রচারেই জোর দিচ্ছি। আমাদের আবেদন-‘সব হাতে চাকরির খাম চাই, সব পেটে ভাত চাই’।