বিজেপি দেওয়াল লিখন মুছে ফেলার অভিযোগ তৃণমূলের বিরুদ্ধে, উত্তেজনা

91

হরিশ্চন্দ্রপুর: আসন্ন বিধানসভা নির্বাচন। হরিশ্চন্দ্রপুরজুড়ে শাসকদল এবং বিজেপি দেওয়াল লিখন শুরু করে দিয়েছে। এরইমধ্যে হরিশ্চন্দ্রপুরে তৃণমূলের বিরুদ্ধে দেওয়াল লিখন মুছে দেওয়ার অভিযোগ আনল বিজেপি। বিজেপির দেওয়াল লিখন মুছে দেওয়ার ঘটনাটি ঘটেছে, বুধবার ৪৬ নম্বর হরিশচন্দ্রপুর বিধানসভা এলাকায়। আর এদিনের ঘটনায় শুরু রাজনৈতিক চাপানউতোর।

এদিন বিজেপির দাবি করেন, তাদের দেওয়াল লিখন মুছে দিচ্ছে শাসকদলের কর্মী-সমর্থকেরা। আগেও এভাবেই বিজেপির দেওয়াল লিখন মুছে দেওয়া হত বলে অভিযোগ। চুন দিয়ে বিজেপির প্রতীক ‘পদ্মফুল’ মুছে দেওয়া হয়েছে। স্বভাবতই অভিযোগ অস্বীকার করেছে তৃণমূল। তৃণমূলের দাবি, বিজেপির গোষ্ঠি কোন্দলের জেরে নিজেরাই এসব করেছে।

- Advertisement -

বিজেপির প্রাক্তন বিধায়ক পদপ্রার্থী চন্দ্রনাথ রায় জানান, এলাকায় শাসকদল নোংরা রাজনীতিতে নেমেছে। তাঁরা এখন পায়ের তলায় মাটি হারিয়ে দিয়েছে বলে তাঁদের দলের দেওয়াল লিখন মুছে ফেলছে।

বিজেপি জেলা পরিষদ ১০-এর বিজেপি যুব মোর্চার সভাপতি মনোজ দাস বলেন, ‘সকালবেলা আমাদের কার্যালয়ে যাওয়ার সময় দেখি আমাদের দেওয়াল লিখন ছিল। সেখানে চুন দিয়ে পদ্মফুলের ছবি মিটিয়ে দেওয়া হয়েছে। আগে যখন আমরা দেওয়াল লিখন করতাম, তৃণমূলের ছেলেরা সেগুলো মিটিয়ে দিত।’

এপ্রসঙ্গে হরিশ্চন্দ্রপুর ১ নং ব্লক তৃণমূল সভাপতি মানিক দাস জানান, তৃণমূলে এধরনের নোংরা রাজনীতিতে বিশ্বাসী নয়। বিজেপি এলাকায় নিজেদের দিকে সহানুভূতির ভোট প্রান্তে এই ধরনের খেলা খেলছে। তাছাড়া এলাকার মানুষ দেখেছে এই দল কিভাবে নিজেদের পার্টি অফিস ভাঙচুর করছে। এদের দলের মধ্যে একাধিক গোষ্ঠী। এই দেওয়াল লিখন মোছা এদের নিজেদের গোষ্ঠীদ্বন্দ্বের ফল। তাঁদের দলের লোকেরা নিজেদের কাজে ব্যস্ত। তাঁরা এই নোংরামীতে অভ্যস্ত নয়। টিএমসি এই কালচারে বিশ্বাসী নয়। বিজেপি এই কালচারে বিশ্বাসী।