বাতানুকূল কামরায় দুর্গন্ধমুক্ত কম্বল দেবে রেল

162

নয়াদিল্লি, ২৬ জুনঃ ট্রেনের বাতানুকূল কামরার যাত্রীদের জন্য সুখবর। ট্রেনে উঠে আর নোংরা, দুর্গন্ধময় কম্বল ব্যবহার করতে হবে না। যাত্রীরা যে কম্বল ব্যবহার করবেন, সেটি মাসে অন্তত দু’বার কাচা হবে। সম্প্রতি এমনই নির্দেশিকা জারি করেছে রেলমন্ত্রক। এছাড়া উলের পুরোনো ভারী কম্বল বাতিল করে উল এবং নাইলনের তৈরি হালকা নতুন কম্বল নিয়ে আসার পরিকল্পনা করা হয়েছে।

রেলমন্ত্রকের এক আধিকারিক জানান, বর্তমানে উলের ভারী কম্বল ব্যবহার করা হয় এবং দু’মাসে একবার কাচা হয়। এর খরচ হিসাবে যাত্রীদের থেকে প্রায় ৪০০ টাকা নেওয়া হয়। এবার ফেব্রিকের নতুন কম্বল নিয়ে আসা হবে এবং নিয়মিত কাচা হবে। ফলে খরচও বাড়বে। তবে কত খরচ বাড়বে তা এখনও চূড়ান্ত হয়নি। শীঘ্রই এই বিষয়ে সিদ্ধান্ত নেওয়া হবে। খরচের বিষয়টি চূড়ান্ত না হলেও প্রতিটি বাতানুকূল ট্রেনের প্রত্যেক যাত্রার শুরুতে পরিচ্ছন্ন কম্বল দেওয়ার লক্ষ্য নিয়েছে রেলমন্ত্রক। এছাড়া প্রতিদিন ট্রেনের বাতানুকূল-১ যাত্রীদের কম্বলের ঢাকা বদল করা হবে বলেও রেলমন্ত্রকের এক আধিকারিক জানিয়েছেন। ট্রেনের বাতানুকূল-২ এবং বাতানুকূল-৩-এর যাত্রীরা অবশ্য এই সুবিধা পাবেন না।

- Advertisement -

রেলমন্ত্রক সূত্রে খবর, বর্তমানে ট্রেনের বাতানুকূল কামরার যাত্রীদের যে কম্বল দেওয়া হয়, সেগুলি কমপক্ষে ১০ বছরের পুরোনো। এছাড়া নোংরা, দুর্গন্ধময় কম্বল দেওয়া হয় বলেও বহু যাত্রীর অভিযোগ রয়েছে। সম্প্রতি ক্যাগ-এর রিপোর্টেও এই বিষয়ে অভিযোগ রয়েছে। কম্বলগুলি দু’মাসে অন্তর নয়, ছয়মাস অন্তর কাচা হয় বলে রিপোর্ট দিয়েছে ক্যাগ। এই রিপোর্টের পরই নড়েচড়ে বসেছে রেলমন্ত্রক।